প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] খুলনায় মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবনসহ তিনজনের ভিন্ন মেয়াদে সাজা

খুলনা প্রতিনিধি: [২] বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) খুলনা সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামি অনুপস্থিত ছিলেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এনামুল হক।

[৩] সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, কেশবপুরের ভেরচি গ্রামের আব্দুল মজিদ শেখের ছেলে রিপন শেখ (যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি), ডুমুরিয়া আটালিয়া গ্রামের আব্দুল ছোবহান মোড়লের ছেলে শাহিন মোড়ল ও সাতক্ষীরা দেবহাটা গ্রামের নুর মোহাম্মাদ মোল্লার ছেলে মহিউদ্দিন মোল্লা (পলাতক)।

[৪] তাদের মধ্যে যাকে যাবজ্জীবন দেওয়া হয়েছে তাকে একইসঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অপর দুই আসামির প্রত্যেককে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্র্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

[৫] আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৬ এপ্রিল বিকেল পৌনে ৪ টার দিকে খুলনা র‌্যাবের একটি দল ডুমুরিয়ার চুকনগর বাজারের পাশে মেসার্স সুজন ট্রেডার্সের সামনে পৌঁছালে কিছু যুবক দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। র‌্যাব সদস্যরা সেখান থেকে রিপন শেখ, শাহিন মোড়ল, ও মহিউদ্দিন মোল্লাকে আটক করে। এ সময় তারা রিপন শেখের প্যান্টের পকেট থেকে ৪৫ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে। যার বর্তমান বাজার মূল্য আট লাখ টাকা। তারা আরও তিন আসামির নামোল্লেখ করে। এ মামলায় তাদের সহযোগী আসামি করা হয়। তারা হলেন- মিজানুর রহমান, আব্দুস ছালাম ও মো. কামাল। ওই দিনে র‌্যাবের ডিএডি মো. অহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ডুমুরিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন, যার নম্বর-৬।

[৬] একই বছরের ৫ সেপ্টেম্বর ডুমুরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আশিকুল আলম তাদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা করেন। মামলায় ১১ জন স্বাক্ষ্য দেন।

সর্বাধিক পঠিত