প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মধুমতি ব্যাংক চরফ্যাশন শাখার কয়েক কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ অনুসন্ধানে দুদকে

ইসমাঈল ইমু: [২] মধুমতি ব্যাংক ভোলা জেলা জেলার চরফ্যাশন শাখার সাবেক ম্যানেজার এবং ওই এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা মো. রেজাউল কবির দুদকে দায়ের করা অভিযোগে জানান, মধুমতি ব্যাংক চরফ্যাশন শাখার একাউন্টকৃত সব ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নামে ইতিমধ্যে বৈধ ও অবৈধভাবে কমপক্ষে তিন থেকে চার হাজার কোটি টাকার লেনদেন হয়ে আসছে।

[৪] গত ১৩ জানুয়ারি ঢাকা থেকে মধুমতি ব্যাংক লিমিটেড চরফ্যাশন শাখায় অডিট এন্ড ইন্সপেকশন টিমের তাৎক্ষণিক ‘পে-অর্ডার স্টক নিরিক্ষায় ১২টি পে-অর্ডার ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যাংকের আট কোটি ৯৫ লাখ টাকার হিসেবে গড়মিল উদঘাটন করেছেন। ওই ১২টি পে-অর্ডারের মাধ্যমে আট কোটি ৯৫ লাখ টাকার গড়মিলের ছয় কোটি ১০ লাখ টাকা সংসদ সদস্য জ্যাকবের ভাই জাহিদুল ইসলাম সৌরভ তার বিকাশ ব্যবসার জন্য নিয়ে টাকা আটকে রেখেছেন।

[৫] অভিযোগে আরও বলা হয়, নিয়ম বহির্ভূতভাবে ওই শাখার ম্যানেজারকে প্রেসারাইজ করে ব্যাংকের ক্যাশ থেকে প্রতিদিনই ৫-১২ কোটি টাকা নিয়ে তাদের বিকাশে পেমেন্টের চাহিদা পুরন করা হতো। কিন্তু অধিকাংশ সময় উক্ত টাকার বিপরীতে চেক দিতেন না।

[৬] অভিযোগে আরো প্রকাশ, মনোয়ারা ট্রেডার্সের মালিক মনোয়ারা বেগম উক্ত প্রতিষ্ঠানে আয় বহির্ভূত অতিরিক্ত লেনদেন সহজভাবে করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটির মালিকের ছেলে তরিকুল ইসলাম শরীফ এই ব্যংকের অফিসার নিজেই তার মায়ের স্বাক্ষর করে থাকেন।

[৭] এদিকে গত ২০ জানুয়ারি মধুমতি ব্যাংকের এই শাখার সাবেক ম্যানেজার মো. রেজাউল কবির ভোলা প্রেসক্লাবে সংসদ সদস্য জ্যাকব ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে এক সংবাদ সম্মেলনে দুর্নীতির তথ্য প্রকাশ করেছেন ।

[৮] ওই সংবাদ সম্মেলনের এসব তথ্য স্থানীয় ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এরপরওই পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগকারী মো. রেজাউল কবির ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। আর এই হুমকির বিষয়ে গত ২৩ জানুয়ারি ভোলা সদর থানায় তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম একটি সাধারন ডায়েরী করে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত