প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তরাষ্ট্রে আলোচনার পরদিন ফের যুদ্ধ
[১] কূটনীতিতে সমাধান হবে না: আর্মেনিয়া, শান্তি বহু দূর: আজারবাইজান

সিরাজুল ইসলাম: [২] ওয়াশিংটন ডিসিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে শুক্রবার পৃথক আলোচনা করেন দেশ দুইটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আলোচনার আনুষ্ঠানিক ফলাফল প্রকাশ করা হয়নি। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আলোচনায় বেশ অগ্রগতি হয়েছে। রয়টার্স

[৩] স্থানীয়রা জানায়, নাগরানো-কারাবাখের রাজধানী খ্যাত স্তেপেনকার্ত শহরে শনিবারও গোলা ছুঁড়েছে আজেরিয় সেনারা। এতে অনেক ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে আজেরিয় সেনা বলছে, ইরান সীমান্তে তারা অনেক এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। আর্মেনিয়া বলছে, তাদের সেনারা আজেরিয় সেনাদের হটিয়ে দিয়েছে। ডেইলি সাবাহ

[৪] ২৭ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া যুদ্ধে এ পর্যন্ত ৫ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। মস্কোর মধ্যস্থতায় এর আগে দুই দফা অস্ত্রবিরতি চুক্তি করে দেশ দুইটি; কিন্তু কয়েক মিনিটের মাথায় তা ভেঙ্গে যায়। এ জন্য একে অপরকে দায়ী করে। বিবিসি

[৫] আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধের এ পর্যায়ে কূটনীতিক সমাধান তিনি দেখছেন না। জবাবে আজেরিয় প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ বলেন, শান্তি বহুদূর। তবে ফ্রান্সের লি ফিগারো সংবাদপত্রকে তিনি বলেন, তারা আলোচনা ও অস্ত্র বিরতিতেও রাজি; কিন্তু আর্মেনিয়া প্রতিনিয়ত হামলা করছে। রয়টার্স

[৬] আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোহরাব ম্ন্যাটসাকাইয়্যান বলেন, অস্ত্রবিরতে কাজ চলছে। বেশ অগ্রগতি হয়েছে। ওয়াশিংটনে আলোচনা শুরুর আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেফ তায়্যেব এরদোগান বলেন, ইস্তানবুল ও মস্কো সমস্যা সমাধানে কাজ করছে।

[৭] নাগরনো-কারাবাখ আজারবাইজানের ভূমি। আর্মেনিয়ার সহায়তা ও সমর্থন নিয়ে জাতিগত আর্মেনিয়রা অঞ্চলটি নিয়ন্ত্রণ করে আসছে। ১৯৯১-১৯৯৪ সাল পর্যন্ত এ অঞ্চল নিয়ে দেশ দুইটির যুদ্ধে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। সিএনএন

 

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত