প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তাইওয়ান ভারতে স্মার্ট ফোন তৈরিতে ১৪৩ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে

রাশিদ রিয়াজ : চীনের সঙ্গে ভারত ও তাইওয়ানের সম্পর্ক টানাপড়েন শুরু হবার পর এ দুটি দেশ নিজেদের মধ্যে বিনিয়োগ ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে অগ্রসর হচ্ছে। তাইওয়ানের ফক্সকম, উইসটর্ন এন্ড পেগাটর্ন ভারতে ব্যাপক আকারে স্মার্ট ফোন উৎপাদনে যাবে। এজন্যে প্রয়োজনীয় সাড়া দিয়েছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। এজন্যে ভারতের বিজেপি সরকার তাইওয়ানকে সবধরনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। গত কয়েক বছর ধরে তাইওয়ান ভারতে বিনিয়োগের সুযোগ খুঁজছিল। কিন্তু ভারতের তরফ থেকে এব্যাপারে একটু ধীর গতি লক্ষ্য করা যায় কারণ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সঙ্গে কোনো চুক্তি হওয়ার আগে চীনের সঙ্গে বড় ধরনের কোনো বিতর্কে জড়াতে চায়নি দিল্লি। দি প্রিন্ট

ভারতে তাইওয়ানের বিনিয়োগ প্রযুক্তি ও ইলেক্ট্রোনিক্স খাতে সক্ষমতা অর্জনে ব্যাপক সুবিধা নিয়ে আসবে। স্মার্ট ফোন উৎপাদনে ১৪৩ বিলিয়ন ডলারের তাইওয়ানি প্রস্তাবকে ইতিমধ্যে অনুমোদন দিয়েছে মোদি সরকার। আগামী ৫ বছরে এসব স্মার্ট ফোন তৈরি করা হবে যা ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রফতানি করা যাবে। ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র যোগেশ বাওয়েজা ও তাইওয়ানের বাণিজ্য মধ্যস্ততাকারী জন ডেং এব্যাপারে বিস্তারিত কিছু না বললেও তারা নিজেদের মধ্যে ব্যাপক আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে তাইওয়ানকে এখনো দাফতরিকভাবে ভারত স্বীকৃতি না দিলেও এ ধরনের আলোচনা চলছে বাণিজ্য ও কূটনৈতিক প্রতিনিধি পর্যায়ে।

২০১৮ সালে তাইওয়ান ও ভারত দ্বিপাক্ষিক বিনিয়োগ চুক্তি করার পর গত বছর উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য ১৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। যার আর্থিক পরিমান ৭.২ বিলিয়ন ডলার। চীনের তরফ থেকে যদিও তাইওয়ানকে পৃথক কোনো দেশ হিসেবে স্বীকৃতি না দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। তবে তাইওয়ানের দশম জাতীয় দিবসে টুইটারে ভারতীয়রা স্বাগত ও শুভেচ্ছা জানিয়েছে যা বেইজিংয়ের নজর এড়ায়নি। লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা তাইওয়ানের প্রতি ভারতীয় নাগরিকদের মনোভাব আরো উদার হয়েছে। এরপর মোদি সরকার চীনের কয়েক’শ অ্যাপ নিষিদ্ধ করেন যার মধ্যে টিকটক রয়েছে। ভারত একই সঙ্গে জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিকল্প অ্যাপ নিয়েও কথা বলে। করোনাভাইরাস টিকার জন্যে চীনের বিপরীতে ভারত বিকল্প উৎস থেকেও ভ্যাকসিন আনার উদ্যোগ নেয়। কারণ ভারতে ৭৫ লাখ মানুষ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর ১ লাখ ১৫ হাজার মানুষ মারা গেছে। অন্যদিকে চীনের চেয়ে তাইওয়ান আরো সফলতার সঙ্গে করোনাভাইরাসকে মোকাবেলা করায় দেশটিতে ২৪ মিলিয়ন জনসংখ্যার মধ্যে ৬’শ মানুষ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও মারা গেছে মাত্র সাত জন।

এদিকে তাইওয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ বলেছেন আমাদের সমমনা গণতান্ত্রিক দেশগুলোর সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক বৃদ্ধির চেষ্টা করছি। যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও ভারতের সঙ্গে আমাদের ঐতিহ্যবাহী সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি পাবে। তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হবার পর তার তাজমহল ভ্রমণের ছবি সহ ভিডিও পোস্ট দিলে বিষয়টি ভারতীয় নাগরিকদের নজর কাড়ে। তবে ভারতে চীনের দূতাবাস থেকে তাইওয়ানের স্বাধীনতাকামীদের নিয়ে বেশি উৎসাহ না দেখানোর অনুরোধ দিয়ে বলা হয়ে পাছে ভারতীয় নাগরিকরা এতে বিভ্রান্ত না হন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত