প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাসুদ রানা : যদি আইনের আইনের শাসন চান!

মাসুদ রানা : যদি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে চান, আপনাকে শুধু-যে বিচারবহির্ভূত হত্যার বিরোধিতা করতে হবে, তা নয়; কারও অপরাধের জন্যে রাস্তা নেমে হোক কিংবা বিবৃতি দিয়েই হোক, “ফাঁসি চাই, শাস্তি চাই” দাবীর সংস্কৃতি ছেড়ে বিচার চাওয়ার সংস্কৃতি গড়ে তুলতে হবে।

কোন্‌ অপরাধের কোন্‌ শাস্তি, তা ঠিক করার মালিক আপনি নন; এটি আদালত তথা বিচারকের কাজ। আপনার কাজ হচ্ছে বিচার চাওয়া এবং বিচারটি ঠিক-মতো হচ্ছে কি-না তা লক্ষ করা।

অবশ্য, বিচার আপনার মনমতো না হলে, আপনি তার বিরুদ্ধে আপীল করতে এবং এমনকি রাস্তায় আন্দোলনও করতে পারেন। উপযুক্ত আইন না থাকলে আইন তৈরির দাবীও করতে পারেন। কিন্তু বিচারের রায় দিতে পারেন না।

আরেকটি কথা। আপনারা যে মাঝে-মাঝে কোনো-কোনো লোমহর্ষক অপরাধ সংঘটিত হলে দাবী করেন যে, অপরাধী যেনো কোনো আইনজীবীর সহায়তা না পায় – যা অনেক সময় আইনজীবীরাও ঘোষণা করেন, এটি কিন্তু এক প্রকার বর্বরতা। কারণ, অপারাধী যতো ভয়ঙ্কর বা নৃশংসই হোক না কেনো, আইনে যদি তার বিচার করা হয়, তাকে আইনের সয়াহয়তা নিতে দিতে হবে।

যে-সমাজে অপরাধীকে আইনের সহায়তা পেতে দেওয়া হয় না, কিংবা যে-সমাজের আইনজীবীরা একজন ভয়ঙ্কর অপরাধীকে আইনি সহযোগিতা দিতে অস্বীকার করে একটা মহৎ কাজ করেছে বলে ভাব করেন, সে-সমাজ সভ্য সমাজ নয়।

অপরাধী মানুষ বলেই তার বিচার হয়। আর, মানুষ বলেই তাকে মনুষ্য-মর্য্যাদা দিতে হবে, এমনকি সে-অপরাধী স্বয়ং যদি মনুষ্য-মর্য্যাদার চরম লঙ্ঘনকারীও হয়ে থাকে। কারণ, অপরাধী মনুষ্য-মর্য্যাদার লঙ্ঘনকারী হলেও, আপনা্রা তো তা নন! ফেসুবক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত