প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]যাত্রাবাড়ীর ৫৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ে ২২দিনেও ধরা পড়েনি কেউ, সিসিটিভি ফুটেজেও শনাক্ত হয়নি

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : [২] গত ১০ মে প্রকাশ্যে চার ছিনতাইকারী সায়েদবাদ সড়ক ও জনপথ (সওজ) মোড়ে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামকে পিটিয়ে তার কাছ থেকে কলো রঙের কাপড়ের ব্যাগ ভর্তি ৫৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা ছিনিয়ে দুটি মোটর সাইকেলে করে পালিয়ে যায়। আশপাশের লোকজন যাতে কাছে কাছে না আসতে পারে সেজন্য ছিনতাইকারীরা এলোপাতাড়ি গুলিও ছোঁড়ে।

[৩] সাইফুল ইসলাম বেসরকারি একটি ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং এজেন্সি মারফুস এন্টারপ্রাইজ ও এইচ-২৪ এন্টারপ্রাইজের মালিক। তিনি যাত্রাবাড়ীর কাজলার এলাকায় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে এক কর্মচারীকে সঙ্গে করে মোটরসাইকেলে মতিঝিলের একটি ব্যাংকে টাকা জমা দিতে যাচ্ছিলেন।

[৪] পুলিশ জানায়, ছিনতাইয়ের ঘটনায় করা মামলাটি প্রথমে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ তদন্ত তরলেও পরে তদন্তের দায়িত্ব পায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ। ঘটনাটির ছায়া তদন্ত করছে র‌্যাব।

[৫] ডাচ বাংলা ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং এজেন্সি মারুফ এন্টারপ্রাইজ ও এইচ ২৪ এন্টারপ্রাইজ মালিক সাইফুল ইসলাম সবুজ জানান, যাত্রাবাড়ী কাজলা বউ বাজার তার অফিস থেকে দুটি ব্যাগে করে ৫৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা নিয়ে বড় ভাইসহ মোটরসাইকেল যোগে মতিঝিল যাচ্ছিলেন। যাত্রাবাড়ী জনপদ হানিফ ফ্লাইওভারের নিচে মোটরসাইকেলটি পৌঁছালে হঠাৎ ছিনতাইকারীদের দুটি মোটরসাইকেল তাদের চলন্ত মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। দুই মোটরসাইকেলে থাকা চারজন ছিনতাইকারী তাদের রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে। পরে তাদের কাছে থাকা টাকা ভর্তি ব্যাগ দুটি নিয়ে তারা পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় তারা কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও করে।

[৬] এ বিষয়ে ডিএমপির ডিসি (মিডিয়া) মো. ওয়ালিদ হোসেন বলেন, এখনো কোনো আপডেট নেই। তবে তদন্ত চলছে।

সর্বাধিক পঠিত