প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সিএমপি’র ট্রাফিক পুলিশ বক্স বিস্ফোরণের মামলায় নব্য জেএমবির ০৩ জঙ্গি গ্রেফতার

রাজু চৌধুরী, চট্টগ্রাম : [২] সিএমপি পাঁচলাইশ মডেল থানাধীন ষোলশহর ২নং গেইটস্থ ট্রাফিক পুলিশ বক্সে আকস্মিক বিস্ফোরণের ঘটনায় আইইডি তৈরির সরঞ্জাম সহ নব্য জেএমবির ০৩ জঙ্গি গ্রেফতার করেছে সিএমপি'র কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

[৩] সিএমপি সূত্রে জানা যায়, গত ২৮/০২/২০২০ রাতে ঘটনার পর থেকেই চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ মাহাবুবর রহমান, বিপিএম, পিপিএম এর নিবিড় দিক নির্দেশনায়, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) শ্যামল কুমার নাথ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে উপ-পুলিশ কমিশনার (সিটি) হাসান মোঃ শওকত আলী এর তদারকিতে এবং প্রযুক্তিগত সহায়তায় ও নির্ভরযোগ্য গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের চৌকস অফিসারগন ৩ মে বিকাল ০৫:০০ টায় বাকলিয়া থানাধীন ডিসি রোডস্থ গনি কলোনিতে অভিযান পরিচালনা করে নব্য জেএমবির তিন জঙ্গী - ১) মোঃ সাইফুল্লাহ (২৪), ২) মোঃ এমরান (২৫) ও ৩) মোঃ আবু ছালেহ (২৫)’কে আইইডি তৈরির সরঞ্জাম সহ গ্রেফতার করেন।

[৪] অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সিটি) পলাশ কান্তি নাথ এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক মো. আফতাব হোসেন, এসআই রাছিব খান, এসআই সঞ্জয় গুহ, এসআই ফরহাদ হোসেন, এসআই সুমিত দাস ও অন্যান্যদের সম্বন্বয়ে গঠিত একটি চৌকস টিম উক্ত অভিযান পরিচালনা করেন।

[৫] জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা পরস্পরের যোগসাজসে গত ২৮/০২/২০২০ খ্রিঃ রিমোট কন্ট্রোলের সহায়তায় ২নং গেটস্থ ট্রাফিক পুলিশ বক্সে আইইডি বিস্ফোরন ঘটানোর কথা স্বীকার করে।

[৬] বিস্ফোরনের ফলে সার্জেন্ট/মোঃ আরাফাত হোসেন ভূঁইয়া ও এএসআই/আতা উদ্দিন সহ কয়েকজন পথচারি গুরুতর আহত হয়। পুলিশ জানায়, আসামীগন দেশের প্রচলিত আইনকে তাগুতের আইন ও বাংলাদেশ পুলিশকে তাগুত হিসাবে চিহ্নিত করে বোমা হামলার মাধ্যমে পুলিশ সদস্যদের হত্যা করার চেষ্টা করছে।

[৭] অনলাইনে পাওয়া অপ্রচলিত মোবাইল ফোন এ্যাপস ব্যবহার করে ঐ এ্যাপসের মাধ্যমে দলের সকল সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে বোমা/আইইডি তৈরির বিভিন্ন ভিডিও আদান প্রদান করে সেই অনুসারে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটায় মর্মে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত