প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খেলার জন্য পিচ শুকাতে হেয়ার ড্রায়ার-ইস্ত্রির ব্যবহার, সামাজিক মাধ্যমে সমালোচনার ঝড়

স্পোর্টস ডেস্ক : গতকাল রোববার গুয়াহাটিতে বছরের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নামার কথা ছিলো ভারত ও শ্রীলঙ্কা। কিন্তু বেসরিক বৃষ্টি টস করতে দিলেও বল গড়াতে দেয়নি। ম্যাচটি যেনো যেকোনো ভাবে হয় তার জন্য কোনো কিছুর কমতি রাখেনি ভারত। পিচ শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রেয়ার ও ইস্ত্রি পর্যন্ত ব্যবহার করেছে তারা। এমন অদ্ভুতুড়ে পদ্ধতির জন্য সামাজিক মাধ্যমে বইছে সমালোচনার ঝড়।

গুয়াহাটির বর্ষাপাড়া স্টেডিয়ামে রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় শুরু হওয়ার কথা ছিলো ম্যাচ। কিন্তু গুয়াহাটিতে বৃষ্টি হয়েছে সকাল থেকেই। যদিও নির্দিষ্ট সময়েই টস হয়েছিলো ম্যাচের। টস জিতে ফিল্ডিং নেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

কিন্তু খেলা শুরুর মিনিট ১৫ আগে নামে বৃষ্টি। পরে বৃষ্টি থেকে গেলে পিচ শুকাতে ব্যবহার করা হয় অদ্ভুতুড়ে সব পদ্ধতি। প্রথমে ভ্যাকুয়াম ক্লিনার এনে পিচ শুকোনোর চেষ্টা করেন মাঠকর্মীরা।

এরপর নিয়ে আসা হয় ইস্ত্রি। একটি কাপড়কে দুই ভাঁজ করে ভেজা জায়গায় রেখে তার ওপর ইস্ত্রি করে ছোট রোলার দিয়ে পিচ শুকোনোর চেষ্টা করা হয়। ব্যবহার করা হয় হেয়ার ড্রায়ারও। যদিও কোনো লাভ হয়নি। ম্যাচটি পরিত্যাক্ত ঘোষণা করে আম্পায়াররা।

এদিকে পিচ শুকানোর অদ্ভুতুড়ে সব পদ্ধতি নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

নাভিন নামে একজন টুইট করেছেন, ‘হেয়ার ড্রায়ার? সত্যি? কী লজ্জা!’ একজন গত বিশ্বকাপের কথা তুলে ধরে লিখেছেন, ‘কিছু লোক বিশ্বকাপ চলাকালীন ইংল্যান্ডের গ্রাউন্ড স্টাফদের নিয়ে বিরক্ত ছিলো। এখন তারা (ভারত) হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে পিচ শুকাচ্ছে।’

আরেকজন সমালোচনা করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের, ‘আমরা কি আসলেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী বোর্ড? যখন আমরা এই সমস্যাগুলো মোকাবেলার ব্যবস্থাই নিতে পারি না। হেয়ার ড্রায়ার, ইস্ত্রি পিচ শুকানোর জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে। সৃজনশীল, তবে বাজে ব্যবস্থা।’

একজন ট্রল করেছেন আনুষ্কা ও বিরাট কোহলির ছবি দিয়ে। হেয়ার ড্রায়ার ছবির কোহলিকে যুক্ত করে লিখেছে, ‘আমার আনুষ্কার হেয়ার ড্রায়ার ফিরিয়ে দেও।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত