প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘জাতির পিতাকে অনুসরণ করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার’

তরিকুল ইসলাম : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অনুসরণ করে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার দরিদ্র মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য কৃষি, মৎস্য এবং তাঁত ও শিল্প সমবায় সমিতি গড়ে তোলা হয়েছে। অসমতা ও সামাজিক অন্তর্ভুক্তির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সম্পদ, প্রতিষ্ঠান, সক্ষমতা, প্রযুক্তি ও রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতির প্রয়োজনীয়তায় গুরত্ব দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সদরদফতরে সামাজিক উন্নয়ন কমিশনের চলতি ৫৭তম অধিবেশনের আওতায় ‘সামাজিক অন্তর্ভুক্তির অসমতা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার কৌশল হিসাবে সামাজিক সুরক্ষা’ শীর্ষক সেমিনারে যোগদিয়ে একথা বলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।

তিনি বলেন, সরকার সামাজিক নিরাপত্তাজালের সবধরণের কর্মসূচি এক করে একটি ব্যাপকভিত্তিক জাতীয় সামাজিক নিরাপত্তা কৌশল প্রণয়ন করেছে। নিয়মিতভাবে ৬.৫ মিলিয়িন বয়স্ক নারী, পুরুষ, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা এবং প্রতিবন্ধীদের ভাতা দেওয়া হচ্ছে। স্বাধীনতার পরপরই জাতির পিতা দেশের উন্নয়ন ও অর্থনীতি পুনর্গঠনে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে সমবায়কে অন্যতম একটি মাধ্যম হিসেবে নির্ধারণ করেন। কৃষি ও ভূমি ব্যবস্থাপনা, শিল্প উদ্যোগ এবং কৃষি ঋণসহ সব সেক্টরে সমবায় ভিত্তিক উৎপাদন ও বণ্টন ব্যবস্থা সম্প্রসারিত করতে কাজ শুরু করেন বঙ্গবন্ধু।

রাষ্ট্রদূত বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পে নারীর কর্মসংস্থানের ফলে তৃণমূল পর্যায়ের নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটেছে। বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশের জনগণকে বিশেষ করে নারীদের আনুষ্ঠানিক ব্যাংকিং ব্যবস্থায় প্রবেশ নিশ্চিত করতে ব্যাংক একাউন্ট খোলার সুযোগ করে দিয়েছে। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মাধ্যমে লাখ লাখ মানুষ বিশেষ করে গ্রামীণ নারীরা উপকৃত ও স্বাবলম্বী হচ্ছে। নারীদের জন্য দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়টির উপর জোর দেওয়া যাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত