প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভেনেজুয়েলা সংকট
ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক পুনস্থাপনের অঙ্গীকার গুয়াইদোর

লিহান লিমা: ভেনেজুয়েলায় চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই নাগরিকদের হাতে হাতে মার্কিন ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার করেছেন দেশটির বিরোধী দলিয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো। সেই সঙ্গে তিনি ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক পুনস্থাপনেরও আশা প্রকাশ করেন। আল জাজিরা, বিবিসি, প্রেস টিভি

বুধবার কারাকাসে এক জনসভায় গুয়াইদো ভেনেজুয়েলায় মার্কিন ত্রাণ প্রবেশে সব রকম ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন সমর্থনদের। তিনি বলেন, ‘২৩ ফেব্রুয়ারি মানবিক সহায়তা ভেনেজুয়েলায় আসবে। আমরা সৈন্যদের আমাদের সঙ্গে যোগ দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’ এদিন এক সাক্ষাতকারে গুয়াইদো বলেন, ‘আমি খুশী যে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক পুনস্থাপনের কাজ চলছে। অচিরেই দুই দেশে একে অপরের দূতাবাস উদ্বোধন করা হবে।’ ২০০৮ সালে তেল আবিব গাজা উপত্যকায় সামরিক হামলা চালালে ভেনেজুয়েলর প্রয়াত প্রেসিডেন্ট হুগো চ্যাভেজ ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন।
এদিকে কারাকাসে দেয়া ভাষণে ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো নাগরিকদের যে কোন বিদেশি হস্তক্ষেপ ও আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাতকারে মাদুরো বলেন, ‘মার্কিন ত্রাণ সামগ্রীর আড়ালে চরমপন্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের হস্তক্ষেপের বিষ লুকিয়ে আছে।’ প্রসঙ্গত, এক সপ্তাহআগে ভেনেজুয়েলার ভ্যালেনসিয়া নগরীর আরতুরো মিচেলিনা আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে মার্কিন অস্ত্রের চালান জব্দ করা হয়। ফ্লোরিডার মিয়ামি থেকে এ সব অস্ত্র পাঠানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাতে ভেনেজুয়েলা সংকট নিয়ে সরাসরি ফোনে আলোচনা করেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ ও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইকেল পম্পেও। বুধবার রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, ‘ভেনেজুয়েলার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে যে কোন হস্তক্ষেপ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছেন ল্যাভরভ।’ রুশ ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সংকট সমাধানে বিরোধী দলের সঙ্গে মাদুরোর আলোচনায় ভূমিকা রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।’ জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেসও সংকট সমাধানে মধ্যস্থতা করার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। অন্যদিকে চীন ভেনেজুয়েলার অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ না করার জন্য সবপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

২০১৩ সালে ক্ষমতায় আসা মাদুরো গত বছর দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর সংকট শুরু হয়। যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো ভেনেজুয়েলার ওপর অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেয়ার চাপ দেয়। ২৩ জানুয়ারি গুয়াইদো নিজকে অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করলে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানিসহ ৪০টি দেশ তাকে স্বীকৃতি দেয়। কিন্তু রাশিয়া, চীন, তুরস্ক ও দেশটির সেনাবাহিনী মাদুরোর সঙ্গে আছে। বুধবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলমান মার্কিন ও ইউরোপিয় অবরোধের মুখে তেল রপ্তানিতে ভারতের দিকে ঝুঁকছে ভেনেজুয়েলার তেল কোম্পানি পিডিভিএসএ। এর আগে পিডিভিএসএ তাদের তেল বিক্রির টাকার অ্যাকাউন্ট যুক্তরাষ্ট্র থেকে রাশিয়ায় স্থানান্তর করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত