প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বব্যাপী তরুণদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা: গবেষণা

লিহান লিমা: বিশ্বব্যাপি অন্য যে কোন কিছুই চাইতে তরুণদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা বলে সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে। ল্যানচেট মেডিক্যাল জার্নালে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে ২৮ জন বৈশ্বিক বিশেষজ্ঞ জানান, মানসিক সমস্যা শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হলে প্রতিবছর ১ কোটি ৩৫ লাখ মৃত্যু প্রতিরোধ করা যেত।

পূর্বে বিশ্বব্যাংকের এক তথ্যে দেখা গিয়েছে, ২০৩০ পর্যন্ত মানসিক স্বাস্থ্যের কারণে কর্মক্ষমতা থেকে বাদ পড়া ব্যক্তিদের হারিয়ে বিশ্বের আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ হবে ১৬ লাখ কোটি ডলার। ল্যানচেট কমিশন জানায়, সহিংসতা ও ট্রমার কারণে বিরক্তি, অবসাদ ও হতাশার সৃষ্টি হয়। মানসিক সমস্যার কারণে মানুষের দক্ষতা কমে যায়। প্রতিটি দেশই এই সমস্যার সম্মুখীন ও একইসঙ্গে এটি মোকাবেলা করতে অক্ষম। এছাড়া ভারত, চীনসহ অনেক তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে ৮০ভাগ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় ভোগা ব্যক্তি কোন চিকিৎসা নেয় না। কিছু কিছু দেশে মানসিকভাবে অবসাদগ্রস্ত ব্যক্তিদের ঠাঁই হয় কারগারে ও রাস্তায়। যা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন।

ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি গবেষক নিক ওবরাডোভিচ বলেন,‘বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি ও মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়ে কম আয়ের ব্যক্তি ও নারীদের ওপর। ল্যানচেট কমিশন আশঙ্কা প্রকাশ করে জানায়, প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বাড়ছে। অথচ মানসিক স্বাস্থ্য সেবার মান শারীরিক স্বাস্থ্য সেবার চাইতে অনেক নিচু। বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে মানসিক স্বাস্থের জন্য বরাদ্দ নেই বললেই চলে। তারা এই সময় মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষাকে গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি রুটিন চেকআপ নিশ্চিত করার কথা জানায়। গার্ডিয়ান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত