প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বায়তুল মোকাররম প্রাঙ্গণে জমে উঠেছে টুপি, আতর-তসবিহ ও বইয়ের বাজার

রুহুল আমিন: জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম প্রাঙ্গণে জমে উঠেছে ইসলামী বইমেলা ও রমজান কেন্দ্রীক সামগ্রীর বাজার।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ এর আয়োজিত বই মেলা শুরু হয়েছে ৬০টি স্টল নিয়ে। এরই মধ্যে পাঠকের ভিড় বাড়ছে, পাশাপাশি বায়তুল মোকাররাম মসজিদ কেন্দ্রীক রমজান সামগ্রী পোশাক ও সুগন্ধি পাঞ্জাবি, টুপি, আতর ও জায়নামাজের বেচাকেনা বেড়েছে।

ব্যবসায়ীদের মধ্যে অভিযোগ আছে স্টল বরাদ্দে অনিয়ম হয়েছে প্রচার নিয়ে কর্তৃপক্ষ ঢিলেমি করেছে। তা না হলে বেচাকেনা আরও বাড়তে পারতো।

জমে উঠেছে ইসলামিক বইমেলা: শুক্রবার মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, এখন পর্যন্ত কোরআন হাদিস কেন্দ্রীক পাঠকের চাহিদা তুঙ্গে। স্টল মালিক ও বিক্রয়কর্মীরা বলছেন, যেহেতু রমজানের শুরু পনেরো রমজানের পর অন্যান্য বইয়েরপাঠক চাহিদা বাড়বে।

বই মেলা কোরআন বাংলা অনুবাদ, বোখারী শরিফ ও মুসলিম শরিফ হাদিসের সহ ধর্মীয় মাসা-মাসায়েলের বই ও মহানবী মুহাম্মদ (স.) জীবনী ও সাহাবীদের জীবনী ইসলামী শাসকদের সময় কারের ঘটনা রচিত সমূহ ও ইসলামী ইতিহাস, কবিতা ও গল্পের বই স্থান পাচ্ছে স্টল গুলোতে ।

এই কয়দিনে যেসব বইগুলো পাঠক চাহিদা ও বিক্রি হয়েছে তার মধ্যে আল্লামা ইবনে কাসীর (র.) লেখা তাফসীর ইবনে কাসীর। ইসলামী ফাউন্ডেশন প্রকাশিত দৈন্দিন ইসলাম, মহানবী (স.) ড. মুহাম্মদ হোসাইন হারকন আল বিদায়া ওয়াল হিদায়া, ইসলামের ইতিহাস আদি- অন্ত এ ১৪ খন্ডের মধ্যে দশ খ- অনুবাদ হয়েছে এর পাঠক চাহিদা তুলনামূলক বেশি ।

এছাড়াও বঙ্গবন্ধু শেখ মজিব রহমানকে নিয়ে শেখ দুলালের লেখা ছোটদের কবিতার বই মুজিব মানে বঙ্গবন্ধু। মুহাম্মদ আজাদ আলীর লেখা ছোটেদের নজরুল। সামীম মোহাম্মাদ আফজলের লেখা ইসলামের বুনিয়াদি শিক্ষা ।

‘লেখক ও শিক্ষক ড. খন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীরের বই ইসলামে জঙ্গিবাদ ,রাহে বেলায়াত, হাদিসের নামে জালিয়াতি’ এছাড়াও সালাউদ্দিন জাহাঙ্গীরের ‘প্রিয়তমা’ পাঠকের মাঝে সাড়া জাগিয়েছে।

রমজান কেন্দ্রীক সামগ্রীর বাজার: আতর পাওয়া যাচ্ছে তিন শ খেকে পাঁচ শ টাকার মধ্যে আসছে দুবাই, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, সৌদি আরবরের আতর বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এরমধ্যে দেশীয় সিলেটে উৎপাদিত ‘উদ’ আতরে দাম ৫হাজার টাকা। এছাড়াও আতর ব্যবসায়ীরা দেশি-বিদেশি কিছু আতরে নাম বলেন সুরমা, জান্নাতুল ফেরদাউস, মেসকে আম্বর, সাহী দরবার, রুহে গোলাপ।

ভারতের রেডিমেট পাঞ্জাবি পাওয়া যায় চার শ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে আর স্থান কাপড় বিক্রি হচ্ছে প্রতিগজ চার শ থেকে ১ হাজার টাকায়।এক পাঞ্জাবি ব্যবসায়ী জানান, ১৫ রমজানের পর থেকে দেশীয় কাপড়ের তৈরি পাঞ্জাবি বিক্রয় হবে তিন শ থেকে পাঁচ টাকার মধ্যে যা গুণে মানে ভারতীয় পাঞ্জাবির কোন অংশে কম নয় ।

জায়নামাজ পাওয়া যাচ্ছে তিন শ থেকে পাঁচ টাকার মধ্যে ক্রেতাদের মাঝে তুর্কি ও পাকিস্থানের জায়নামাজের চাহিদা বেশি।
টুপির বাজারে ‘পাকিস্তানি টুপি’ বিক্রী হচ্ছে চৌদ্দ শ টাকায়। তাসবিহ আট শ থেকে শুরু করে ১০০ টাকা পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছে।

কোরআন মঞ্জিল প্রকাশনী বিক্রয় কর্মী আশিক এলাহী অভিযোগ করে বলেন, এখানে ইসলামী ফাউন্ডেশনের কর্তাব্যক্তিরা তাদের পছন্দের ব্যবসায়ীদের সামনের স্টলগুলো দিয়ে দিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ