প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপিকে চার দেয়ালেই বন্দি রাখতে চায় সরকার

ডেস্ক রিপোর্ট : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কারামুক্তি দাবিতে বিএনপির চলমান ‘অহিংস কর্মসূচি’কে চার দেয়ালের বাইরে আসতে দেবে না আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার। বিএনপি এই ‘অহিংস কর্মসূচি’র ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখলেও তা ধীরে ধীরে ধ্বংসাত্মক কর্মসূচিতে পরিণত হতে পারে—এমন আশঙ্কা থেকে সরকারের নীতি-নির্ধারণী মহল এমন পরিকল্পনা করেছে। এ কারণে তারা বিএনপিকে রাজপথ নয় ঘরে-অফিসের ভেতরেই রাখতে বাধ্য করতে চান। আওয়ামী লীগের নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের একাধিক নেতার সঙ্গে আলাপকালে ক্ষমতাসীন দলটির এমন মনোভাবের কথা জানা গেছে।

সম্পাদকমণ্ডলীর দুই জন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, সরসারের কাছে তথ্য রয়েছে—বিএনপির ‘অহিংস কর্মসূচি’ শেষপর্যন্ত সহিংসতার দিকে যেতে পারে। এ কারণে বিএনপির ‘অহিংস কর্মসূচি’র ওপরও বিধি-নিষেধ আরোপ করা হতে পারে। তবে সরকারের এ পরিকল্পনাকে বিএনপি যেন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে অপপ্রচারের সুযোগ না পায়, সেদিকেও বিশেষ নজর থাকবে ক্ষমতাসীনদের।

এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে এ ধরনের ইঙ্গিত দিয়েছেন। রবিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের (আইইবি) সেমিনার হল রুমে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সভায় তিনি বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দলটি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে করলে ঘরে বসে ও অফিসে বসে করুক।’

ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আপনারা (বিএনপি) শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের কর্মসূচিকে সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে কেউ বাদ দিচ্ছে না। রাস্তা বন্ধ করে কোনও সভা-সমাবেশ করা যাবে না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করে মানুষের দুর্ভোগ সৃষ্টি করছেন। আপনারা যদি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেন, তাহলে ঘরে করুন, অফিসে করুন। রাস্তায় কেন? জন দুর্ভোগ সৃষ্টি করছেন কেন?’

রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপিকে বিশ্বাস করা যায় না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘বিএনপি এমন একটি রাজনৈতিক দল, তাদের বিশ্বাস করা দায়। আজ অহিংস আছে, কাল তাদের চরিত্র বদলে যেতে পারে। তারা সহিংস আন্দোলনে চলে যেতে পারে। ফলে আগে থেকেই তাদের কর্মসূচির ওপর নজর দেওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও থাকতে পারে সরকারের।’ তিনি বলেন, ‘জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বিধানের দায়িত্ব সরকারের। ফলে সরকার তার দায়িত্ব পালন করবে।’

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘বিএনপি যেকোনও সময়ে সহিংস হয়ে উঠতে পারে, অতীত অভিজ্ঞতা তাই বলে। বিএনপির ষড়যন্ত্র করছে। সরকার তা মোকাবিলা করার চেষ্টা করবে, এটাই স্বাভাবিক। তবে বিএনপি অহিংস আন্দোলনের পথে থাকলে সরকার নিশ্চয়ই গণতান্ত্রিক আচরণই করবে।’

এদিকে, দলের একজন কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, ‘বিএনপির কর্মসূচিতে বাধা দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হলে রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগ বাধা দেবে না। সরকারের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীই বাধা দেবে। আপাতত রাজপথে কোথাও অনুমতি দেওয়া হবে না বিএনপির কর্মসূচি পালনের। তবু বিএনপি কর্মসূচি পালন করতে চাইলে পুলিশ দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’ বাংলা ট্রিবিউন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত