শিরোনাম
◈ ১০ টাকায় টিকিট কেটে চক্ষু পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী ◈ জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা থেকে দুর্নীতি নির্মূল করাই আমাদের লক্ষ্য: হাইকোর্ট ◈ বৈশ্বিক কারণে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ায় কষ্টে আছে মানুষ: কাদের ◈ ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন পরীমণি ◈ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগকারিদের জন্য বিশেষ সুযোগ  ◈ রংপুর সিটি নির্বাচনে মোস্তাফাকে লাঙ্গলের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা রওশনের ◈ পুলিশে ছেয়ে গেছে চীনের রাজপথ ◈ টাঙ্গাইলে বাসচাপায় দুই ব্যাংক কর্মকর্তা নিহত ◈ লক্ষ্মীপুরে বিএনপির ৫ নেতাকে অব্যাহতি 

প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ০৭:৩৮ বিকাল
আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ০৭:৩৮ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সন্ত্রাস-লাঠির প্রদর্শনী আমরা চাই না: পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী

মনজুর এ আজিজ : পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, লাঠির প্রদর্শনী, ডাকাডাকির প্রদর্শনী, আগুনের প্রদর্শনী, সন্ত্রাসের প্রদর্শনী, হুমকির প্রদর্শনী এগুলো আমরা চাই না। বরং যে প্রদর্শনী আমি উদ্বোধন করতে এসেছি সেটি খুব ভাল। এটি সকলেল নিরাপত্তার প্রদর্শনী। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ইলেক্ট্রিক সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (ইসাব) এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত তিন দিনব্যাপী ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপোর উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি।  

এম এ মান্নান বলেন, নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবিতে ৮ অক্টোবর থেকে প্রতি শনিবার(১৯ নভেম্বর) বিভাগীয় শহরে সমাবেশ করছে বিএনপি। এর অংশ হিসেবে ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে ঢাকায় সমাবেশের কর্মসূচি রয়েছে দলটির। নয়াপল্টনের এই সমাবেশ আয়োজন নিয়ে বিএনপি ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতাদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্যের মধ্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এমন কথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন এবং ফারুক হাসান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঈসাব সভাপতি জহির উদ্দিন বাবর। সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন, ইসাবের সেক্রেটারি জেনারেল এম মাহমুদুর রশিদ। 

তিন দিনব্যাপী এই প্রদর্শনীতে শতাধিক ব্র্যান্ড অংশ নিয়েছে। ৩০টি দেশ থেকে সরবরাহকারী ও উৎপাদকরা তাদের পণ্য প্রদর্শন করছে। প্রদর্শনীতে ২৫টি প্যাভেলিয়ন ও ৫০টি বিভিন্ন ধরনের বুথ রয়েছে। আগামী ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত চলমান এই প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এছাড়া বিভিন্ন বিষয়ে ২৫-২৬ নভেম্বর সকাল-বিকাল কয়েকটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। সেমিনারে মন্ত্রী, সরকারের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তাসহ স্ট্রেক হোলডাররা উপস্থিত থাকবেন। 

এমএএ/এএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়