শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪০ রাত
আপডেট : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আদ্দিস আবাবায় বাংলাদেশ দূতাবাসে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

জন্মবার্ষিকী উদযাপন

মনজুর এ আজিজ: বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালন করেছে আদ্দিস আবাবায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ দূতাবাস, আদ্দিস আবাবায় এক বিশেষ অনুষ্ঠানে ইথিওপিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী, সুদান ও দক্ষিণ সুদানে বসবাসরত বাংলাদেশী নাগরিক এবং আমন্ত্রিত কিছু ইথিওপিয়ান নাগরিক এবং অত্র দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠ এবং দোয়ার মাধ্যমে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু, তাঁর পরিবারবর্গ, শহীদ শেখ কামালসহ এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তি সংগ্রামের সকল শহীদদের রূহের মাগফেরাত কামনা করা হয়।

শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত পৃথক পৃথক বাণী আগত অতিথিদের উদ্দেশ্য পাঠ করে শোনানো হয় ও শহীদ শেখ কামালের জীবন ও কর্মকান্ডের উপরে দুইটি (ভিডিও) প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়। অনুষ্ঠানে ইথিওপিয়া ও দক্ষিণ সুদান থেকে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। তাঁরা শহীদ শেখ কামালের কর্মময় জীবন সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করেন। 

অনুষ্ঠানে দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য ইথিওপিয়া, সুদান ও দক্ষিণ সুদানের প্রবাসী বাংলাদেশী ও স্থানীয়-বিদেশী ব্যক্তিবর্গকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তিনি শেখ কামালের এই সংক্ষিপ্ত জীবনে জাতির জন্য ক্রীড়া ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে তার অসামান্য অবদানের কথা উল্লেখ করেন। বিশেষ করে নব্য স্বাধীন দেশের পুনঃগঠন ও উন্নতির জন্য যুবশক্তির যথাযথ সংগঠন ও ব্যবহারের মাধ্যমে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপনের জন্য শেখ কামালের নাম চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। 

তিনি সকলকে শেখ কামালের ত্যাগ ও জাতিগঠনে তার উৎসাহে উজ্জ্বীবিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করার আহবান জানান। বাংলাদেশের ও অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের যুবকদের জন্য শহীদ শেখ কামালের জীবন সবসময়ই একটি উজ্জল উদাহরন হয়ে থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। আগত অতিথিদের নৈশ ভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়। 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়