শিরোনাম
◈ শান্তি-শৃঙ্খলা ফেরাতে আইনশৃঙ্খলা  বাহিনীকে কঠোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ◈ সরকার আলোচনার কোনো পরিস্থিতি রাখেনি, কর্মসূচী অব্যাহত রাখার ঘোষণা: বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন ◈ বিটিভিতে হামলা-আগুন, সম্প্রচার বন্ধ ◈ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ◈ আমরা ধৈর্যের পরীক্ষা দিচ্ছি, এটা দুর্বলতা নয়: ডিবিপ্রধান ◈ নরসিংদীতে গুলিতে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর মৃত্যু, আহত শতাধিক ◈ চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ২ ◈ নেত্রকোনায় ইউএনও, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ আহত অর্ধশত, ৭ আন্দোলনকারী গুলিবিদ্ধ ◈ শান্তিপূর্ণ সমাধানের দিকে এগোতে চায় সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী ◈ শিক্ষার্থীদের পরিবর্তে বিএনপি-জামাত আগুন-সন্ত্রাস নিয়ে মাঠে নেমেছে: ওবায়দুল কাদের   

প্রকাশিত : ০৯ জুন, ২০২৩, ০১:৫৩ দুপুর
আপডেট : ০৯ জুন, ২০২৩, ০৬:২৩ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আফগানিস্তানে ২ বছরে ৩০০ মিডিয়া আউটলেট বন্ধ

ইমরুল শাহেদ: বিশ্ব প্রেস ফ্রিডম দিবসে এ তথ্য জানিয়েছে কিছু মিডিয়া-সমর্থক সংস্থা। এতে প্রায় পাঁচ হাজারের বেশি গণমাধ্যমকর্মী কাজ হারিয়েছেন। তথ্য প্রবাহের অভাব, গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতি সহিংসতা এবং মিডিয়ার সঙ্গে অর্থনৈতিক সমস্যা গণমাধ্যমকর্মী ও মিডিয়া হাউজগুলোর সামনে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাঁড়িয়েছে। সূত্র: টলোনিউজ

আফগান স্বাধীন সাংবাদিক সমিতির চেয়ারম্যান হোজাতুল্লা মুজাদিদি বলেন, আমাদের সহকর্মীরা তথ্য খুঁজছেন, কিন্তু দুঃখের বিষয়, মিডিয়াকে যে তথ্য সরবরাহ করতে হবে তা সময়মতো এবং সঠিকভাবে সরবরাহ করা হয় না। ইসলামী আমিরাতের কিছু মুখপাত্র এই ক্ষেত্রে একটু-আধটু সহযোগিতা করেন।

নিরাপত্তা কমিটির প্রধান আব্দুল কাদিম ভিয়ার বলেন, সরকারকে অবশ্যই মিডিয়া এবং মিডিয়া-সম্পর্কিত কার্যকলাপের জন্য একটি উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে হবে। আইন এই বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করেছে।

পাজওক আফগান নিউজের প্রধান আব্দুল কাদির মনসেফ বলেন, ‘একজন রিপোর্টারকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে হয়রানি করা হয় এবং ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে রাখা হয়। পরে সংস্কৃতি ও তথ্য মন্ত্রণালয় তাকে ছেড়ে দেয়।’

টোলোনিউজের পরিচালক জাবিহুল্লাহ সাদাত বলেন, অধিকাংশ সময়, যখন আমাদের সহকর্মীরা তাদের কল করে, তখন তারা গ্রহণ করে না এবং যখন আমরা তাদের কল করার চেষ্টা করি, তখন খবরটি গুরুত্ব হারিয়ে ফেলেছে এবং আমরা বিদেশী মিডিয়া থেকে সেই তথ্য পেয়ে যাই।

কিছু সাংবাদিক বলেছেন, তারা সরকারি কর্মকর্তাদের কাছ থেকে সময়মত তথ্য পান না এবং সহিংসতা বৃদ্ধির পাশাপাশি আর্থিক সমস্যা তাদের কার্যক্রমে বাধার সৃষ্টি করছে।

দাউদ নামের একজন সাংবাদিক বলেন, তথ্য প্রবাহ অভূতপূর্বভাবে হ্রাস পেয়েছে। জোরপূর্বক সেন্সরশিপের মতো সমস্যায় জর্জরিত বলে গণমাধ্যমগুলো অচল হয়ে পড়ছে।

তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রনালয় বলেছে, ইসলামিক আমিরাত দেশের আইনের কাঠামোর মধ্যে মিডিয়ার কার্যক্রমকে সমর্থন করে।

তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্দুল মতিন কানে বলেন, সরকার সর্বদা ইসলামী মূল্যবোধ, জাতীয় স্বার্থ এবং দেশের সর্বোচ্চ স্বার্থের কাঠামোর মধ্যে প্রিন্ট, অডিও বা ভিডিও যাই হোক না কেন পাবলিক মিডিয়ার প্রতি তার পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে। 

বিশ্ব প্রেস ফ্রিডম দিবসে জাতিসংঘ অ্যাসিস্ট্যান্ট মিশন অব আফগানিস্তান এক বিবৃতিতে বলেছে, আফগানিস্তানের মিডিয়ার ভবিষ্যতের জন্য গুরুতর উদ্বেগ প্রকাশ করে, যেখানে সাংবাদিকরা তালেবান ডি-ফ্যাক্টো কর্তৃপক্ষের বর্ধিত নিষেধাজ্ঞার মধ্যে ভয় ও ভয়ের পরিবেশে কাজ করতে বাধ্য হয়। সম্পাদনা: মাজহারুল ইসলাম

আইএস/এইচএ/এইচএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়