শিরোনাম
◈ চার বছর পর বিধিনিষেধহীন মুক্ত পরিবেশে পহেলা বৈশাখ ◈ পহেলা বৈশাখে ইলিশের দাম চড়া ◈ নববর্ষ ১৪৩১ বঙ্গাব্দকে বরণে বর্ণাঢ্য র‌্যালি করবে আওয়ামী লীগ ◈ নতুন বছর মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে: প্রধানমন্ত্রী ◈ নতুন বছর মানে ব্যর্থতা পেছনে ফেলে সমৃদ্ধ আগামী নির্মাণ করা: মির্জা ফখরুল ◈ ইসরায়েলের তেল আবিব থেকে সরাসরি ঢাকায় ফ্লাইট অবতরণ ◈ বিএনপি গুম-নির্যাতনের কাল্পনিক তথ্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে: ওবায়দুল কাদের ◈ সরকারি খরচে ৩০৪৮টি মামলায় আইনি সহায়তা প্রদান ◈ রেল ভ্রমণে মানুষের আস্থা তৈরি হয়েছে: রেল মন্ত্রী  ◈ অস্ট্রেলিয়ায় শপিংমলে ছুরি হামলায় নিহত ৫, আততায়ী মারা গেছে পুলিশের গুলিতে

প্রকাশিত : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০৮:০৮ রাত
আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০৮:০৮ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মোহাম্মদপুরে কিশোর গ্যাংয়ের হামলা, হাত হারানোর শঙ্কায় তরুণ 

সুজন কৈরী: [২] মোহাম্মদপুরের রায়ের বাজার এলাকার ‘ডাইল্লা গ্রুপ’ নামক একটি কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে এক তরুণের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। গ্যাংটির সদস্যদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রাকিব খন্দকার নামের ওই তরুণের একটি হাত হারানোর শঙ্কা দেখা দিয়েছে। আহত অবস্থায় রাকিবকে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

[৩] বুধবার দুপুরে রায়েরবাজারের ইদ্রিস খান (ক্যান্সার গলি) সড়কে এ ঘটনা ঘটে। রাকিব রায়েরবাজারের জাফরাবাদ এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা। তার পিতার নাম মৃত জালাল উদ্দিন।

[৪] ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, বাড়ির সামনে মাদক বিক্রি ও কিশোর গ্যাং সদস্যদের আড্ডা দিতে নিষেধ করায় গত এক বছরে তিনবার রাকিবের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। কিশোর গ্যাংটির হামলার হাত থেকে রক্ষা পাননি তার পরিবারের নারী সদস্যরাও।

[৫] পঙ্গু হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আহত রাকিবের স্ত্রী আনিকা আক্তার বলেন, রায়েরবাজার এলাকায় আমার শ্বশুর বাড়ির সামনে নিয়মিত মাদক কেনা-বেচা ও কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা নিয়মিত আড্ডা দেয়। আমার স্বামী তাদের বাড়ির সামনে আড্ডা দিতে নিষেধ করায় তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যার উদ্দেশে বারবার হামলা করে।

[৬] রাকিবের ওপর হত্যার উদ্দেশ্যে এ নিয়ে তিন বার হামলা হয়েছে উল্লেখ করে আনিকা বলেন, গত ৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় একই কায়দায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছিল কিশোর গ্যাং ‘ডাইল্লা গ্রুপ’র সদস্যরা। সেই সময়ে একটা বাড়িতে ঢুকে প্রাণে বাঁচে। আমরা স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে আমার পেটেও স্ট্যাম্প দিয়ে আঘাত করা হয়। এই ঘটনায় মোহাম্মদপুর থানায় গ্যাংটির সাত সদস্যের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১০ থেকে ১২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেওয়া হয়।

[৭] কিশোর গ্যাংয়ের হামলার বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার ওসি মাহফুজুর রহমান ভুঞা বলেন, ঘটনা শুনেছি। মারামারির ঘটনা। ভুক্তভোগী এর আগেও একটি মামলা করেছিলেন। এই ঘটনায় মামলা দিলে নেওয়া হবে। ঘটনার তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী

এসকে/এসসি/এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়