শিরোনাম

প্রকাশিত : ০২ এপ্রিল, ২০২৪, ০৫:৫৫ বিকাল
আপডেট : ০২ এপ্রিল, ২০২৪, ১১:২৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মধ্যরাত পর্যন্ত চলছে ঈদের কেনাকাটা 

রুবেল মজুমদার, কুমিল্লা: [২] আসন্ন ঈদুল ফিতরের আর মাত্র সাতদিন বাকি। ঈদকে সামনে রেখে কুমিল্লার শপিংমল গুলোতে সকাল থেকে মধ্যরাত পষন্ত কেনাকাটা জমে উঠেছে। ক্রেতারা তাদের পছন্দ মতো পোশাকের পাশাপাশি কিনছেন অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিস। ঈদ বাজার জমজমাট হওয়ায় খুশি বিক্রেতারাও। 

[৩] মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুরে কয়েকটি শপিং মল ঘুরে দেখা যায়,ছোট বড় বিভিন্ন শপিংমলের পাশাপাশি বিক্রি বেড়েছে ফুটপাতেও। 

[৪] বিক্রেতারা বলছেন, রমজান মাসের অর্ধেকের পর থেকে মূলত ঈদবাজার জমতে শুরু করেছে। আশা করছি, ঈদ যত ঘনিয়ে আসবে, বেচাকেনা আরও বাড়বে। তাই শেষ সময় মার্কেট গুলো ক্রেতা টানতে দিচ্ছেন লোভনীয় অফার।

[৫] তবে ক্রেতাদের অনেকে অভিযোগ করেছেন, গত বছরের তুলনায় পোশাকের দাম বেশি। বিক্রেতারা বলছেন, বৈশ্বিক আর্থিক অবস্থার পরিবর্তনের কারণে এবার পোশাকসহ অন্যান্য জিনিসের দাম বেশি। 

[৬] নগরীর খন্দকার শপিং কমপ্লেক্স ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতারা তাদের পছন্দ মতো পোশাক কিনতে ভিড় করছেন বিভিন্ন দোকানে। পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে জুতাসহ অন্যান্য জিনিসপত্র কিনছেন। এ ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছেন নারী, তরুণী ও কিশোরীরা। 

[৭] চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আসা ফারহানা নামে এক ক্রেতা বলেন, পরিবারের সদস্যদের জন্য শপিং করতে এসেছেন। সন্তানদের জন্য পছন্দ মতো পোশাক কিনতে চেষ্টা করছেন। 

[৮] শপিং করতে আসা সাথী আক্তার বলেন, পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে কসমেটিকস সামগ্রী কেনার জন্য এসেছেন। সঙ্গে জুতাও দেখছেন। 

[৯] ইফতেখার আহমেদ বলেন, রমজান মাসের শুরুতে বাচ্চাদের জন্য পোশাক কিনেছেন। এখন নিজের ও স্ত্রীর পাশাপাশি পরিবারের মুরব্বিদের জন্য কিনবেন। 

[১০] সামিহা সাঈদ নামে তরুণী বলেন, পোশাক কিনেছেন। এখন এটার সঙ্গে ম্যাচিং করে জুতা ও অন্যান্য সামগ্রী কিনছেন।  

[১১] পোশাকের দাম বেশি- ক্রেতাদের এমন অভিযোগের বিষয়ে ব্যবসায়ী টিটু মজুমদার বলেন, বৈশ্বিক অর্থনীতির প্রভাবে ডলারের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সব ক্ষেত্রে দামের পরিবর্তন এসেছে। আমাদের কিনতে হয়েছে বাড়তি দামে। তবে ক্রেতাদের সাধ ও সাধ্যের ভিতরে আছে, এমন দামে বিক্রি করছি।’ এই বিক্রেতা বিদ্যুতের সমস্যার কথা জানিয়ে বলেন, যেভাবে ঘন ঘন লোডশেডিং হচ্ছে, তাতে ব্যবসায়ীদের সমস্যা হচ্ছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আর্কষণ করেন তিনি। 

[১২] কুমিল্লা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান বলেন, ঈদকে কেন্দ্র করে জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ট্রাফিক পুলিশবও  টহল পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকের পুলিশ দায়িত্বে রয়েছে।

[১৩] ঈদকে কেন্দ্র করে অপরাধী যাতে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে, সেই বিষয়ে পুলিশ প্রশাসন সজাগ রয়েছে। ক্রেতারা নির্বিঘ্নে যাতে শপিং করতে পারে, সেই বিষয়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিভিন্ন শপিংমলে পুলিশ সদস্যদের নিরাপত্তার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

প্রতিনিধি/একে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়