প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চুরি করতে গিয়ে খিচুড়ি রান্না

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের আসামে একটি বাড়িতে চুরি করতে গিয়ে খিচুড়ি রান্না করা শুরু করেছিল এক চোর। কিন্তু খাওয়া শুরুর আগেই পুলিশের হাতে ধরা পড়ে সেই চোর।

গ্রেপ্তারের পর আসাম পুলিশের এক টুইটার পোস্টে এ ঘটনাকে “একটি খাদ্যপ্রেমী চোরের অদ্ভুত ঘটনা’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।”

টুইটারে লেখা হয়, “খিচুড়ি খাওয়ার অনেক উপকারিতা থাকলেও চুরি করতে গিয়ে খিচুড়ি রান্না করা আপনার জন্য মঙ্গলজনক নাও হতে পারে।”

গুয়াহাটি পুলিশ চোরকে গ্রেপ্তারের খবর জানিয়ে আরও লিখেছে, পুলিশ এবার তাকে কিছু গরম খাবার পরিবেশন করছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ‘দ্য হিন্দু’ গুয়াহাটির হেঙ্গেরবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে। এ সময় বাড়ির মালিক বাড়িতে ছিলেন না।

চোরটি বাড়িতে ঢুকে চুরি করার মাঝপথে হঠাৎই রান্নঘরে গিয়ে খিচুড়ি রাঁধতে শুরু করলে রান্নার শব্দে প্রতিবেশীরা চোরের উপস্থিতি টের পেয়ে যায়।

যেহেতু প্রতিবেশীরা জানত যে বাড়ির মালিক ছিলেন না, তাই তারাই তখন ঐ চোরকে পাকড়াও করে। অতঃপর তারা তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

চোরের এমন আজব কাণ্ডকারখানা, সঙ্গে আসাম পুলিশের টুইটারের কৌতুককর পোস্টটিও নেটিজেনদের অনেককেই অবাক করেছে। অনেকেই হাস্যরসাত্মক মন্তব্য, পাল্টা মন্তব্য করেছেন।

এনডিটিভি জানায়, ২০১৭ সালে এরকম একটি ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রে ঘটেছিল। এক চোর একটি রেস্টুরেন্টে ঢুকে টাকাপয়সার খোঁজ করা বাদ দিয়ে নিজের জন্য রান্না করা শুরু করেন। পালিয়ে যাওয়ার আগে পাঁচটি স্টেক স্যান্ডউইচ, ফ্রাই এবং সোডা খেয়েছিলেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত