শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ জানুয়ারী, ২০২২, ০৮:১২ রাত
আপডেট : ০১ জানুয়ারী, ২০২২, ০৮:১২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] স্বাধীনতার পর থেকে অধ্যাবদি বাংলাদেশে গণতন্ত্রের চর্চা গ্রহণযোগ্য পর্যায়ে ছিল না: জি এম কাদের

শাহীন খন্দকার: [২] জাতীয় পার্টি আয়োজিত ৩৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় জি এম কাদের আরো বলেন, শতভাগ গণতন্ত্র কোন দিনই সম্ভব নয়। যেহেতু দেশের সকল মানুষ একসাথে দেশ পরিচালনা করতে পারবে না। আবার সবার প্রত্যাশা এক হবে না। ফলে তা বাস্তবায়নও অসম্ভব। তিনি বলেন,স্বাধীনতা অর্জনের ৫০বৎসর বা সূবর্ণজয়ন্তীতে এসে এক কথায় বাংলাদেশে কোন সময়ই তেমন কোন গণতন্ত্রের চর্চা হয়নি। এর প্রধান কারন আমাদের সংবিধান। সংবিধানের মূলনীতি হিসেবে এবং বিভিন্নভাবে গণতন্ত্রের চর্চার বিষয়ে জোড় দিয়ে বলা হয়েছে। কিন্ত সার্বিক ভাবে সংবিধানের বিভিন্ন বিধানাবলীতে গণতন্ত্রের চর্চার চেয়ে একনায়কতন্ত্রবাদকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে ।

[৩] বিভিন্ন সংশোধনীর মাধ্যমে গণতন্ত্র চর্চার সহায়ক প্রতিষ্ঠান সমূহকে পর্যায়ক্রমে দূর্বল থেকে দূর্বলতর করে প্রায় ধ্বংস করা হয়েছে। বক্তব্যে তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বক্তৃতায় তিনি স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, জাতীয় পার্টির দেশ পরিচালনার সময়কালে কিছুটা হলেও গণতন্ত্রের সাধ পেয়েছে দেশের মানুষ। জনগনের অধিকার অপেক্ষাকৃত ভাবে নিশ্চিত ছিল। আইনের শাসন ছিল। সমাজে সার্বিকভাবে বৈষম্য ছিল কম, ন্যায় বিচার ছিল।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়