প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সম্ভাবনাময় খাতে বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণে সকরারের সহায়তা চেয়েছে বিজিএমইএ সভাপতি

শরীফ শাওন: [২] পোশাক শিল্পের বর্তমান পরিস্থিতি, বিশেষ করে শিল্প বর্তমানে যে চ্যালেঞ্জগুলোর সম্মুখীন হয়েছে এবং চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলায় সম্ভাব্য করনীয়গুলো নিয়ে আলোচনায় এ সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশের পোশাক রপ্তানিকারক সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান।

[৩] মঙ্গলবার বিডা কার্যালয়ে বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে তিনি এ সহযোগিতা চেয়েছেন। পোশাকশিল্প বর্তমানে নন-কটন টেক্সটাইল এবং উচ্চ মূল্য সংযোজিত পোশাকপণ্যের প্রতি ক্রমাগত ঝুঁকছে বলেও জানান তিনি।

[৪] ফারুক হাসান বলেন, বাংলাদেশে পশ্চাদ সংযোগ টেক্সটাইল খাতে, বিশেষ করে ওভেন খাতে আরও বিনিয়োগের প্রয়োজন আছে। বিনিয়োগের জন্য টেক্সটাইল খাত খুবই সম্ভাবনাময় এবং এই খাতে বিশেষকরে মনুষ্য-সৃষ্টফাইবার ভিত্তিক ইয়ার্ন এবং পলিয়েষ্টার, ভিসকোস, স্প্যানডেক্স প্রভৃতি ফেব্রিক্সের ক্ষেত্রে বিপুল বিনিয়োগ সম্ভাবনা এখনও অনাবিষ্কৃত রয়ে গেছে।

[৫] স্পেয়ার পার্টস, টেক্সটাইল মেশিনারী, হালকা প্রকৌশল, পাট, চামড়া, ঔষধ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, সিরামিকস এবং জাহাজ নির্মান প্রভৃতি শিল্পগুলোও বিনিয়োগের জন্য সম্ভাবনাময় খাত বলে তিনি আলোচনায় উল্লেখ করেন।

[৬] আলোচনাকালে বিজিএমইএ সভাপতি ব্যবসা পরিচালনা সহজীকরন করা, বিশেষ করে অধিক বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য ব্যবসার প্রতিবন্ধকতাসমূহ দূরীকরণ, ব্যবসার বিভিন্ন প্রক্রিয়াকে সময় সাশ্রয়ী করা এবং সকল ক্ষেত্রে ব্যয় কমানোর উপর গুরুত্বারোপ করেন।

[৭] বিজিএমইএ সভাপতিসহ প্রতিনিধি দল ইউরোপীয় দেশগুলোর কয়েকটিতে কোভিড-১৯ আবারও ছড়িয়ে পড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে জানান, ইইউ বাংলাদেশের পোশাকের সর্ববৃহৎ রপ্তানি বাজার। আগামী দিনগুলোতে সম্ভাব্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকার পোশাক শিল্পের সহায়তায় সহযোগিতা প্রদান অব্যাহত রাখবে বলেও তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

[৮] বিজিএমইএ এর প্রতিনিধিদলে অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন ১ম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মো. শহিদউল্লাহ আজিম, সহ-সভাপতি মো. নাসিরউদ্দিন, সহ-সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক আসিফ আশরাফ, পরিচালক ফয়সাল সামাদ, পরিচালক ব্যারিষ্টার ভিদিয়া অমৃত খান ও পরিচালক মো. ইমরানুর রহমান।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত