প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়ে বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিল করলেন মোদি

ওয়ালিউল্লাহ সিরাজ: [২] শুক্রবার সকালে জাতির উদ্দেশ্য দেওয়া ভাষণে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদি বলেন, আমি সবাইকে অনুরোধ করব, আসুন, আন্দোলন ছেড়ে একটি নতুন সূচনা করি। শীঘ্রই আইন প্রত্যাহারের সাংবিধানিক প্রক্রিয়া পূর্ণ করে দেব। ইন্ডিয়া টুডে

[৩] মোদী আরো বলেন, সরকার আইন সম্পর্কে কৃষকদের শিক্ষিত ও অবহিত করার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে এবং তাদের উন্নতির কাজ করে যাবে।

[৪] তিনি আরো বলেন, আমি গত পাঁচ দশকে কৃষকদের দুর্গতি দেখেছি। তাই ২০১৪ সালে যখন দেশ আমাকে নির্বাচিত করে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কাজ করার সুযোগ দেয়, তখন থেকে ছোট কৃষকদের জন্যে কাজ করতে চেয়েছি। আজকে গুরুপর্বে কারোর ওপর দোষারোপ করার সময় নয়।

[৫] মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে কৃষকদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বিজেপি কৃষকদের প্রতি নৃশংস। কিন্তু তার বিরুদ্ধে যে সমস্ত কৃষক নিরন্তর লড়াই চালিয়ে গেছেন তাদের প্রত্যেককে আমার অভিনন্দন। এটা আপনাদের জয়। এই লড়াইয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা।

[৬] কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী টুইট করে বলেন, দেশের অন্নদাতা কৃষকদের সত্যাগ্রহের কাছে মাথা নত করতে বাধ্য হলো সরকার। অন্যায়ের বিরুদ্ধে তারা জিতলেন। জয় হিন্দ, জয় হিন্দের কৃষক।

[৭] ভারতের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের একাংশ মনে করেন, শিখ ধর্মের প্রবক্তা গুরু নানকের জন্মদিনে মোদির এই ঘোষণা অনেক তাৎপর্যপূর্ণ। দিল্লিতে অবস্থানকারী কৃষকদের বড় অংশই পাঞ্জাব ও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের। তাদের মধ্যে শিখ ও জাঠ জনগোষ্ঠীর সংখ্যা অনেক। আগামী বছরের শুরুতেই পাঞ্জাব ও উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা ভোট।

[৮] ২০২০ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর সংসদে কৃষি আইন পাশ করে বিজেপি সরকার। মোট তিনটি বিষয়ে সেখানে পুরনো কৃষি আইনের আমূল পরিবর্তন করা হয়েছিল। এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করছিলেন দেশটির কৃষকরা। বিক্ষোভ করতে গিয়ে মারাও গেছেন অনেক কৃষক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত