প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘শ্রদ্ধেয় যাত্রী ভাই, গ্যাসের গাড়ি, বাড়তি ভাড়া দিবেন না’

অনলাইন ডেস্ক: ডিজেলের দাম বাড়ার পর থেকে সিএনজিচালিত বাসগুলোও যখন যাত্রীদের ঠকিয়ে বাড়তি ভাড়া আদায় করছিল ঠিক তখনই ব্যতিক্রমী চিত্র ধরা পড়ল চট্টগ্রামে। বাসের সামনে একটা স্টিকারে লেখা- ‘শ্রদ্ধেয় যাত্রী ভাই, গ্যাসের গাড়ি, বাড়তি ভাড়া দিবেন না।’

নগরীর চার নম্বর রোডে চলাচলকারী ছয়টি মিনিবাসের সামনে দেখা যায় এ লেখা সম্বলিত স্টিকার। গাড়ির চালক ও হেলপাররা মিলে যাতে বেশি ভাড়া নিতে না পারে সেজন্য গাড়ির সামনে এ কথা লিখে দিয়েছেন মালিক।

মিনিবাসের মালিক সামছুল আলম বাবুল (বড় মিয়া) বলেন, ‘ডিজেলের দাম বেড়েছে, কিন্তু গ্যাসের দাম বাড়েনি। সরকার ডিজেল চালিত গাড়ির ভাড়া বৃদ্ধি করেছে। কিন্তু গ্যাসচালিত গাড়ির চালক ও হেলপাররাও এই সুযোগ নিচ্ছেন। এই নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে মারামারিও হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই বাড়তি ভাড়া নেওয়ার ব্যাপারে মালিকরাও জানতেন না। তাই আমি আমার গ্যাসে চালিত ছয়টি মিনিবাসে এই লেখাটি লিখে দিয়েছি। আর আমার ফোন নম্বর দিয়ে দিয়েছি। যাতে যাত্রীদের কাছ থেকে কেউ অতিরিক্ত ভাড়া নিতে না পারেন।’

আজহারুল ইসলাম নামের এক যাত্রী বলেন, ‘গ্যাস চালিত গাড়িতেও বাড়তি ভাড়া নিচ্ছিল চালকরা-হেলপাররা। তবে এই ছয় গাড়ির মালিক যাত্রীদের প্রতারিত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করেছেন। এটি খুবই সুন্দর একটি উদ্যোগ।’

মিনিবাসের সামনে থাকা ওই স্টিকারের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করে কাউছার আলী চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘মানবিক মানুষ, খুব ভালো লাগল, মালিকপক্ষকে ধন্যবাদ।’

স্রোতের বিপরীতে গিয়ে মালিকপক্ষের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন অনেকে।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন বাস মালিক সমিতির সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলাল বলেন, গাড়িতে স্টিকার লাগিয়ে যাত্রীদের সচেতন করার উদ্যোগটি অনেক ভালো হয়েছে। এতে ভাড়া নিয়ে যাত্রী ও চালক-হেলপারদের মধ্যে কোনো ঝামেলা হবে না। এছাড়া আমরাও চার-পাঁচদিনের মধ্যে গ্যাসে চালিত পরিবহনগুলোতে স্টিকার লাগিয়ে দেবো। আর ডিজেলে চলে এমন পরিবহনে ভাড়ার তালিকা লাগিয়ে দেবো। যাতে কেউ অতিরিক্ত ভাড়া নিতে না পারে। – ঢাকা পোস্ট

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত