প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২ বছরের জেলের ভয়ে ১১ বছর আত্মগোপনে

নিউজ ডেস্ক : দুই বছরের সাজার ভয়ে ১১ বছর আত্মগোপনে থেকে অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেন টেম্পুচালক মোন্তাজ মল্লিক (৫৫)।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে বাগেরহাট সদর উপজেলার চাপাতলা এলাকা থেকে মোন্তাজকে গ্রেফতার করে বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশ। বাংলানিউজ

পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

গ্রেফতার মোন্তাজ বাগেরহাট সদর উপজেলার চাপাতলা গ্রামের মৃত মিরাজ মল্লিকের ছেলে। তিনি রুপসা-বাগেরহাট পুরাতন সড়কে টেম্পু চালাতেন। ২০০৯ সালে পুরাতন রুপসা-বাগেরহাট সড়কে দুর্ঘটনায় মারা যান এক পথচারী। ওই ঘটনায় মোন্তাজের নামে একটি মামলা হয়। সেই মামলায় আদালত তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন। এরপর সাজা ভোগের ভয়ে মোন্তাজ মল্লিক এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যান।
দীর্ঘ ১১ বছর পলাতক থাকা মোন্তাজ গোপনে বাড়ি এসেছিলেন ক’দিন আগে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে চাপাতলা গ্রামের বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ জানায়, বাগেরহাটের ফকিরহাট থানার একটি (জিআর-১৩০/৯) সড়ক দুর্ঘটনার মামলায় ২০১০ সালে মোন্তাজ মল্লিককে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। সাজার ভয়ে তিনি মা-বাবা ও স্ত্রী-সন্তান রেখে চট্টগ্রামে আত্মগোপনে চলে যান। সেখানে তিনি প্রথমে কিছু দিন দিনমজুরি দিতেন। পরে ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক চালাতেন।

গ্রেফতারের পর পুলিশের কাছে মোন্তাজ জানান, পরিবার, স্ত্রী-সন্তানের জন্য মন কাঁদলেও গ্রেফতারের ভয়ে এলাকায় আসতেন না। জেল খাটার ভয়েই এতদিন এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়ান।

বাগেরহাট সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, ২০০৯ সালের সড়ক দুর্ঘটনার একটি মামলায় আদালত মোন্তাজকে দুই বছরের সাজা দেন। রায় ঘোষণার সময় থেকেই তিনি এলাকা ছেড়ে চলে যান। ২১ দিন আগে তিনি চট্টগ্রাম থেকে বাড়িতে আসেন। তবে গোপনে চলাফেরা করতেন। তার বাড়িতে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে বিকেলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত