প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানে ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উদযাপন

কূটনৈতিক প্রতিবেদক: [২] এসব দেশের বাংলাদেশ হাইকমিশন ও দূতাবাসগুলোতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এর ৯১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

[৩] বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা এবং শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালসহ জাতির পিতা, তাঁর পরিবারের অন্যান্য শহিদ সদস্য ও শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে এবং প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের অব্যাহত শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

[৪] অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বাণীতে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব এবং জ্যেষ্ঠ পুত্র শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর আত্মার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি তাদের অসামান্য অবদানের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

[৫] তিনি বঙ্গমাতাকে বঙ্গবন্ধুর জীবনের রাজনৈতিক প্রেরণা হিসেবে উল্লেখ করেন। তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগ তাঁকে বঙ্গমাতা অভিষেকে ভূষিত করেছেন। বাঙালির ছয়দফা ও এগার দফা বাস্তবায়নে তিনি বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেছেন।

[৬] আলোচনায় অংশ নিয়ে রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার ও অন্যান্য বক্তারা বলেন, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব ছিলেন একজন মহীয়সী নারী। তিনি বঙ্গবন্ধুকে রাজনৈতিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় তিনি প্রত্যক্ষভাবে বঙ্গবন্ধুসহ যারা আসামি ছিলেন তাদের পক্ষে কাজ করেছেন।

[৭] বঙ্গমাতা এবং শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের গৌরবময় জীবন ও আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সকলকে জাতির পিতার ‘সোনার বাংলা’ বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান তারা।

সর্বাধিক পঠিত