প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা ও উপসর্গে ২৫ জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯৭ জনের মৃত্যু

জেরিন আহমেদ ও হ্যাপি আক্তার, :[২] করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা বেড়েই চলেছে । একইসঙ্গে আগের তুলনায় বেড়েছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। ফলে পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫ জেলায় ১৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। সময় ও ডিবিসি টিভি

রাজশাহী:
রাজশাহীতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৯২ শতাংশ।
খুলনা:
খুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনা ১৩০ শয্যার ডেডিকেটেড হাসপাতলে ১০ জন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালে ৫ জন, আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে ২ জন এবং বেসরকারি গাজী মেডিকেলে ৫ জন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষা ১০২ জনের করোনা শনাক্ত হয়।
বরিশাল:
বরিশালে গত ২৪ ঘণ্টায় শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ৭ জন মারা গেছে। জেলায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১৭৩ জন। শনাক্তের হার ৬৯ দশমিক ১৪ শতাংশ। বর্তমানে মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে ২১০ জন করোনা রোগী। এর মধ্যে ৪৯ জন করোনা ওয়ার্ডে বাকি ১৬১ জন আইসোলেসন ওয়ার্ডে।
পঞ্চগড়:
পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে ৪৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৩২৫ জন। এ পর্যন্ত জেলায় ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছে ৮৭৮ জন।
টাঙ্গাইল:
টাঙ্গাইলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৬ জন মারা গেছেন। একই সময়ে ৫৪২টি নমুনা পরীক্ষায় ২৭৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৫১ দশমিক ১০ শতাংশ। এদিকে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকা দীর্ঘ হওয়ায় চিকিৎসকরা চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে।
ফরিদপুর:
ফরিদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জন মারা গেছেন। ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। একই সময়ে ৩৫৪ নমুনা পরীক্ষার নতুন করে আরও ১৬৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছে ২৯৭ জন।
কুড়িগ্রাম:
কুড়িগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ১১৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃতরা জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।
ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২২৫টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১০৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বর্তমানে জেলায় শনাক্তের হার ৪৮ শতাংশ। এ অবস্থায় রোগীর ভিড়ে জায়গা সংকটে পরে মেঝেতেই চিকিৎসা নিচ্ছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে ও ক্লিনিকে মারা গেছে চারজন।
সাতক্ষীরা:
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ৩৮৫ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেল। আর করোনা পজেটিভ রোগী মারা গেছে ৭৬ জন। এদিকে ১৬০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪১ জনের পজেটিভ হয়েছে। যার আক্রান্তের হার দাড়ালো ২৫ দশমিক ৬ শতাংশ।
চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪ জন মারা গেছেন।
কুষ্টিয়া:
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। ৮০১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৩৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ২১ শতাংশ। নতুন করে শনাক্ত হওয়া ২৩৪ জনের মধ্যে কুষ্টিয়া সদরের ৯৬ জন, দৌলতপুরের ৪৭ জন, কুমারখালীর ৩৯ জন, ভেড়ামারার ১৭ জন, মিরপুরের ১৬ জন ও খোকসার ১৯ জন রয়েছেন।
নড়াইল:
নড়াইলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন ১৩০ জন। তাদের মধ্যে সদর উপজেলায় ৫০, আলমডাঙ্গায় ৩২, দামুড়হুদায় ২০ এবং জীবননগরে ২৮ জন রয়েছেন। বর্তমানে জেলায় আক্রান্ত রোগী এক হাজার ৫৯১ জন।
ফরিদপুর:
ফরিদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জন মারা গেছেন। একই সময়ে ৩৫৪ নমুনা পরীক্ষার নতুন করে আরও ১৬৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছে ২৯৭ জন।
বগুড়া:
বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত এবং উপসর্গ নিয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।
নওগাঁ:
নওগাঁয় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।
নাটোর:
নাটোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৩ জন মারা গেছেন। তারা সবাই নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ৩৪০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ৩৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ।
ঝিনাইদহ:
সীমান্তবর্তী জেলা ঝিনাইদহে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১৫৬ জন। আক্রান্তের হার ৩৪ দশমিক ১৩ ভাগ। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫ হাজার ১৭৬ জন। এদিকে সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বর্তমানে ১১৫ জন রোগি চিকিৎসাধীন রয়েছে।
বাগেরহাট:
গত ২৪ ঘণ্টায় বাগেরহাটে করোনাভাইরাসে আরও ৩ জন মারা গেছেন। বাগেরহাট সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা গেছেন। একই সময়ে ৪০২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১১৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের ২৯ দশমিক ৪২ শতাংশ।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সাদেক হোসেন (৬০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৬৭ জনে দাঁড়িয়েছে।
সিলেট:
গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে করোনাভাইরাসে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরও ২১৩ জন। মৃতরা সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।
ময়মনসিংহ:
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজন করোনায় এবং চারজন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৭২১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৯৭ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ২৭.৩২ শতাংশ।
নারায়ণগঞ্জ:
নারায়ণগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২২৭ জনে। এছাড়া ৪৯৭ জনের নমুনা সংগ্রহের মধ্যে ১৫৬ জন আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার বর্তমানে ৩১ দশমিক ৩৯ শতাংশ। নগরীর খানপুরে ৩০০ শয্যাবশিষ্ট করোনা হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টার ও আইসিউতে রোগি ভর্তির সংখ্যাও প্রতিদিন বাড়ছে।
যাশোর:
গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে করোনাভাইরাসে আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় নতুন করে ১ হাজার ২০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে শনাক্ত হয়েছে ৩৭৩ জনের। এর মধ্যে যশোর সদরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে ২০৩ জন। এ ছাড়া কেশবপুরে ২৬ জন, ঝিকরগাছায় ৩০ জন, অভয়নগরে ৫২ জন, মনিরামপুরে ২৭ জন, বাঘারপাড়ায় ১২ জন, শার্শায় ১৯ জন এবং চৌগাছায় চারজন রয়েছেন। এই নিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৪ হাজার ১৭০ জন।
দিনাজপুর:
দিনাজপুরে একদিনে করোনায় আরও তিনজনের মারা গেছেন। এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৮৬ জন। ৩১২টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১১১ জন আক্রান্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৭২২ জন। এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে হাসপাতল ও সদর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ১৯৫ জন।
জামালপুর:
জামালপুরে একদিনে করোনাভাইরাসে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত