প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদিতে কৃষি সেক্টরে বাংলাদেশী শ্রমিক নেওয়ার জন্য সৌদি গভর্নরের প্রতি রাষ্ট্রদূতের আহব্বান

আব্দুল্লাহ আল মামুন,সৌদি আরব প্রতিনিধি : সৌদি ভিশন ২০৩০ প্রকল্পের অধিনে সৌদিআরব সরকার১০ বিলিয়ন বৃক্ষ রোপণের যে কর্মসুচি গ্রহণ করেছে তা বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ কৃষি শ্রমিক নেয়ার প্রতি আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশী রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।রাষ্ট্রদূত গতকাল আল কাসিম প্রদেশের সৌদি গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন মিশাল বিন সৌদ বিন আবদুল আজিজ এর সাথে এক সাক্ষাতে এমন প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, আল কাসিম প্রদেশে নানা জাতের ফল, সবজি এবং খেজুর উৎপাদনে ব্যাপক সফলতালাভ করেছে।যার ফলে এখানে অসংখ্য কৃষি খামার গড়ে উঠেছে,এসব কৃষি খামারে অনেক বাংলাদেশি শ্রমিক দক্ষতার সাথে কাজ করছে।বর্তমানে বাংলাদেশ সবজি উৎপাদনে পৃথিবীর তৃতীয় স্থানে রয়েছে এবং সবজি উৎপাদন ও কৃষি কাজে বাংলাদেশী দক্ষ শ্রমিক রয়েছে।

রাষ্ট্রদূত ডা: মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী আল কাসিম প্রদেশের কৃষি খামারে কাজ করতে বাংলাদেশ থেকে প্রয়োজনে আরও কৃষি শ্রমিক নিয়োগের আহবান জানান।সেসময় সৌদি গভর্নর বলেন,বাংলাদেশ থেকে ব্যবসায়ীগণ এসে আল কাসিমের কৃষিজাত পন্য উৎপাদন এবং বানিজ্যিকীকরণ নিয়ে সম্ভাব্য বিষয়ে আলোচনার জন্য সেখানকার চেম্বার অব কমার্সের সাথে আলোচনা করতে পারে সে ক্ষেত্রে তার অফিস সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বস্ত করেন ।

সৌদির আল কাসিম প্রদেশ পর্যটন ও সাংস্কৃতিক উৎসবের জন্য বিখ্যাত। রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বাংলাদেশের পর্যটন সুবিধা ও কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত, সিলেট এর চা বাগান এবং সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ ফরেস্টের কথা উল্লেখ করে সৌদি বাংলাদেশের মধ্যে পর্যটন বৃদ্ধির প্রস্তাব করেন।রাষ্ট্রদূত বলেন, এতে দুদেশের মধ্যেকার মানুষের মাঝে ব্যবসা,যোগাযোগ এবং বন্ধুত্ব আরও মজবুত হবে।

রাষ্ট্রদূত আল কাসিমের বিভিন্ন মর্গে থাকা বাংলদেশিদের মৃতদেহ বাংলাদেশে দ্রুত ফেরত পাঠানোর ক্ষেত্রে সহায়তা চাইলে গভর্ণর তাৎক্ষনিকভাবে তাঁর অফিসকে সংশ্লিষ্ট কফিলদের সাথে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবার নির্দেশ দেন।

সৌদির আল কাসিম জেলে প্রায় ৩০ জন বাংলাদেশী বিভিন্ন অপরাধে বন্দী রয়েছেন উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত ডাঃ মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী যাদের অপরাধ গুরুতর নয় তাদেরকে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার অনুরোধ করেন। এ সময় গভর্নর গুরুত্বের সাথে বিষয়টি বিবেচনা করবেন বলে জানান। এছাড়াও গভর্নর বাংলাদেশ সরকারের নানাবিধ উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের সাথে সুসম্পর্ক আরো জোরদারের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

রাষ্ট্রদূত ড:মোহাম্মদ জাবেদপাটোয়ারী গতকাল রাতে আল কাসিম শহরে বসবাসরত বিভিন্ন পেশার বাংলাদেশীদের সাথে মতবিনিময় করেন। এসময় তিনি বাংলাদেশীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন ও দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দেন।রাষ্ট্রদূত অভিবাসীদের সৌদি আরবে দেশের ভাবমূর্তি বৃদ্ধি করার আহবান জানান। উল্লেখ্য যে,সৌদির আল কাসিম বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিভাগে প্রায় ৩০ জন বাংলাদেশী শিক্ষার্থী বৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করে আসছে এবং এখানকার বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকজন বাংলাদেশি শিক্ষকও রয়েছেI এখানকার বিভিন্ন হাসপাতালে কিছু সংখ্যক বাংলাদেশী চিকিৎসক কর্মরত আছেন। সম্পাদনা : রাশিদ

সর্বাধিক পঠিত