প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দিল্লিতে অটোচালকের মানবিক দৃষ্টান্ত

ডেস্ক নিউজ: করোনার ভয়াল থাবায় বিপর্যস্ত ভারত। প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃত্যু রেকর্ড গড়ছে। অক্সিজেন আর চিকিৎসার অভাবে দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। সংকট মোকাবিলায় যে যার মতো এগিয়ে আসছেন মানুষ। মসজিদ-মন্দির হয়ে উঠছে কোভিড হাসপাতাল। এই বিপর্যয়ে দিল্লির এক অটোরিকশা চালকের ব্যক্তিগত উদ্যোগ মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

জীবিকা নির্বাহের একমাত্র অবলম্বন নিজের অটোরিকশাকে বানিয়েছেন অ্যাম্বুলেন্স। অক্সিজেন সিলেন্ডার আর প্রাথমিক চিকিৎসা সরঞ্জামাদি নিয়ে ডাক পেলেই ছুটে যাচ্ছেন কোভিড রোগীর বাসায়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পৌঁছে দিচ্ছেন হাসপাতালে।

রাজকুমারের তৈরি অ্যাম্বুলেন্সের এক যাত্রী বলেন, এই মহামারিতে আমরা প্রত্যেকেই অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। অনেকের ঘরে খাবার নেই টাকা-পয়সা নেই। অথচ রাজকুমার মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। তিনি এত সুন্দর করে রোগীদের নিয়ে যান। অত্যন্ত দায়িত্বশীল একজন মানুষ। সত্যই এমন মানুষ পাওয়া কঠিন।

রোগীদের আনা-নেয়ায় এতটাই ব্যস্ত যে, নিজের খাবারটিও খেয়ে নেন রাস্তায়। অনেক সময় সারারাত কেটে যায় সিএনজিতেই।

সিএনজিচালক রাজ কুমার, করোনা সবচেয়ে বেশি আঘাত হেনেছে নয়াদিল্লিতে। আমি অটোরিকশাকে অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে মানুষের সেবা করছি। যারা হাসপাতালে যাওয়ার জন্য কোনো অ্যাম্বুলেন্স পাচ্ছে না আমি তাদের সেখানে পৌঁছে দিচ্ছি। এতে হয়তো কেউ প্রাণে রক্ষা পাচ্ছেন। এই কাজ আমার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হলেও মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়াতে পেরে ভালো লাগছে। আসলে টাকা কিংবা ক্ষমতা কোনোটিই আমাদের এখন বাঁচাতে পারবে না। এখন সবাই সবার পাশে থেকে বেঁচে থাকতে হবে।

ভারতে করোনায় অন্যতম ক্ষতিগ্রস্ত শহর নয়াদিল্লি। শহরটিতে এ পর্যন্ত ১০ লাখের মতো মানুষ কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৮ হাজারে বেশি। সূত্র : এই সময়

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত