প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লীনা পারভীন: একঘেয়েমিজনিত রোগ থেকে মুক্তি পেতে মানুষ বেছে নেয় সাময়িক কিছু রাস্তা

লীনা পারভীন: জীবনটা কেমন যেন একটু অগোছালোভাবেই চলে যাচ্ছে। কোথাও কিছু ছন্দপতন হয়েছে। ঠিক কিছুই গুছিয়ে নিতে পারছি না। কেন পারছি না তার কারণ অনুসন্ধানের জন্য যেটুকু ধৈর্য প্রয়োজন সেটুকুও জমাতে পারছি না বা ইচ্ছে করছে না। মানুষের জীবনটাই বোধ হয় এমন। একঘেয়েমিজনিত রোগ থেকে মুক্তি পেতে সে বেছে নেয় সাময়িক কিছু রাস্তা। কিছুদিন যেতে না যেতে আবার সেগুলোও একঘেয়ে হয়ে ওঠে। আবার ছুটে চলা পুরাতনের দিকে। পুরাতনকে অনেক বেশি মূল্যবান লাগতে থাকে, নতুনকে মনে হয় অপ্রয়োজনীয়। অথচ পুরাতনের মাঝে যখন আর জীবনের তাল পাওয়া যাচ্ছিলো না তখন এই নতুনকেই আঁকড়ে ধরে বাঁচতে চায় মানুষ। মনে হয় এই নতুনকেই আমি খুঁজেছিলাম হাজার বছর ধরে।

এই নতুনকে আমি হারাতে চাই না কোনোভাবেই। আসলে মানুষের ভিতরে প্রতিনিয়ত চলে দ্বন্দ্বের খেলা। দ্বিধা ও দ্বন্দ্বের মাঝে আমরা হারিয়ে ফেলি ব্যক্তি আমার আসল চাহিদা। কী চাই আমি, কী চেয়েছিলাম আর যা পেয়েছি তাতেইবা কী পেতে চাইছি। যা পাই না তার জন্যই হাহাকার কাজ করে প্রতিনিয়ত। যাকে নতুন করে পেতে চাই তার মাঝে আসলে কতোটা চাই আর কী চাই। এমন অজানা প্রশ্নগুলো সামনে এলেই মানুষ দ্বিধার দোলনায় দুলতে থাকে। সহজ সমাধান নতুনকে ছুড়ে দিয়ে নিশ্চিত পুরানের কাছে আশ্রয় খুঁজে নেয়া। এদিকে নতুন ভাবতে থাকে, আশায় ফুলে ওঠে। নতুনের মাঝে নতুনকে নিয়ে নতুনত্ব দিয়ে সাজায় স্বপ্নের ভেলা। অবশেষে সেই ভেলায় সে একাই ভাসতে থাকে। আবারও হতাশায় ডুবে। অপ্রাপ্তির বাসনায় জ্বলতে থাকে। অপেক্ষায় থাকে আবারও কোনো সঠিক নতুনের। ফেসবুক থেকে আমিরুল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত