প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] প্রতিদিন ১০ বার পরিষ্কার করা হয় কাবা শরীফ, ব্যবহৃত হয় ৬০ কেজি সুগন্ধি

ওয়ালিউল্লাহ সিরাজ: [২] সৌদি বাদশার তত্ত্বাবধানে ৪০ জন পরিচ্ছন্ন কর্মী, পাঁচ জন পোলিশ কর্মী ও ৯ জন তত্ত্বাবাধায়ক এই কাজ করেন। প্রতিবার পরিষ্কার করতে ২০ মিনিট সময় লাগে। সৌদি গেজেট, আল আরাবিয়া

[৩] পবিত্র মসজিদ ও কাবা শরিফ সব সময় পরিষ্কার ও সুগন্ধি ছড়িয়ে রাখা হয় হজ, ওমরাহ ও মুসল্লিদের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য। এছাড়াও মানুষ যেন পবিত্র এই স্থানে এসে আধ্যাত্মিক ধ্যান-ধারণায় মগ্ন হতে পারে সে ধরনের পরিবেশ বজায় রাখার জন্যে খেয়াল রাখা হয়।

[৪] কাবা শরীফের ভিতরে বছরে দুই বার পরিষ্কার করা হয়। প্রথমবার করা হয় শাবান মাসে আর দ্বিতীয় বার করা হয় জিলকদ মাসে। এ পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম বনু তালহা তথা আলশিবি পরিবারের লোকেরাই করে থাকেন।

[৫] পবিত্র জমজমের পানি, তায়েফ গোলাপ জল এবং বহু মূল্যবান ঊড তেল দিয়ে একটি পরিষ্কার মিশ্রণ তৈরি করে তা পরিষ্কার কাজে ব্যবহার করা হয়। পবিত্র নগরি মক্কার গভর্ণর এ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে আমন্ত্রণ জানান।

[৬] ইসলামে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও সুগন্ধির প্রতি অনেক বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সম্পাদনা : রাশিদ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত