প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কামরুল হাসান মামুন: ধনী-গরিবের বৈষম্যের এক নিদারুন চিত্র

কামরুল হাসান মামুন: আজ শনিবার তাই সকালে একটু বেশিক্ষন হাঁটাহাঁটি করে বাসায় ফিরছিলাম। পথে রাস্তার ধারে আন্তনগর বাস স্ট্যান্ডের পাশে চায়ের একটি ষ্টল। ওখানে চা খাচ্ছে আর গল্প করছে। ওটা ঠিক চা স্টল না। ছোটখাটো একটি পান বিড়ির দোকান সাথে চা কলা নাস্তাও বিক্রি করে।

তো ওরা বলছিল “গরিব মানুষ যারা পরিশ্রম করে রোজগার করে খায় তাগো করোনা নাই। শুনছেন কোন গরিব করোনায় মারা গেছে? করোনা, হার্ট এটাক, ডায়াবেটিস এইগুলা হলো বড়োলোকের অসুখ যারা পরিশ্রম করে টাকা কামায় না। তাহলে ওদের অসুখের জন্য আমগো কাম কাজ বন্ধ থাকবো কেন? আমগো কেন মাস্ক পরতে হইবে”।
একটি দেশের জনসংখ্যার বড় একটি অংশের যদি এই অভিমত হয় তাহলে কি করবেন? আর তাদেরকেই বা দোষ দিবেন কিভাবে? সম্ভবত এটাই তাদের observation! তারা টিভি পত্রিকা এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সর্বত্র শুধু বড়লোক যারা করোনা আক্রান্ত হচ্ছে বা মারা যাচ্ছে তাদের ছবিই দিচ্ছে। তারা আরো দেখছে গরিব দেশের বড়লোকরা মারা যাচ্ছে। আর যেহেতু গরিব দেশে বড়লোক কম তাই আনুপাতিক হরে গরিব দেশে করোনায় মারাও যাচ্ছে কম। ধনি দেশে প্রায় সবাই আমাদের বড়লোকদের মত ধনী তাই ওখানে মারাও যাচ্ছে বেশি। এইরকম ভাবনার মানুষদেরকে আপনি স্বাস্থ্যবিধি মানাবেন কিভাবে? বিষয়টা তলিয়ে দেখে ভাবার দরকার আছে। প্রকট ধনী-গরিবের বৈষম্যের এক নিদারুন চিত্র এটি। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত