প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পটুয়াখালীর মহিপুরে সন্ত্রাসী হামলায় মানবাধিকার কর্মীসহ আহত-১২

কুয়াকাটা প্রতিনিধিঃ [২] বিরোধীয় জমিতে ডাল তুলতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে মানবাধিকার কর্মী ও নারীসহ ১২জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গুরুতর আহত দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালীতে প্রেরণ করা হয়েছে।

[৩] মহিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

[৪] আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কলাপাড়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গত ১ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৫টায় মহিপুর থানা সদরের বিপিনপুর গ্রামের আম বাগান এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

[৫] মানবাধিকার কর্মী ও জমির মালিক সুমন হাওলাদার জানিয়েছে, জে এল শিববাড়িয়া মৌজার এস এ ১৬৯ খতিয়ানের জমি ১.৩২ একর জমির মালিক তারা। ঐ জমি নিয়ে আদালতে দেওয়ানী মামলা রয়েছে। আদালত থেকে তাদের পক্ষে রায় রয়েছে। ধানের মৌসুমে ওই জমিতে তারা ধান চাষ করেছেন। রবি শস্য মৌসুমে ডালের চাষ করে তারা। ঐ ডাল তুলতে গেলে একই এলাকার ইসমাইল সিকদার গংরা দেশীয় অশ্রসস্র নিয়ে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। উক্ত বিরোধীয় জমিতে বিরোধীয়দের প্রবেশে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

[৬] সুমন হাওলাদার আরো জানান, দীর্ঘ বছর ধরে চাষাবাদের মাধ্যমে ভোগ দখল করছে তারা। তাদের চাষকৃত মুগ ডাল তুলতে গেলে ভূমিদস্যু ফারুক সিকদার, ইসমাইল সিকদার, এসাহাক সিকদার , এরশাদ, রফিক, সুলতান খা, নুরছায়েদ, খলিল , ইমরান, নিজাম, ছরোয়ারসহ ৫০/৬০ জনের একটি গ্রুপ হামলা চালিয়ে মহিলাসহ ৯জনকে আহত করে। এদের মধ্যে নজরুল ও সালমা বেগমের মাথায় আঘাতে গুরুতর আহত রয়েছে। আহতদের পরিবার অভিযোগ করেন, ক্ষেতে ডাল তুলতে গেলে হামলার শিকার হতে পারে এমন আশংকা থেকে আগেই মহিপুর থানা পুলিশের সহায়তা চাওয়া হয়েছে। কিন্ত পুলিশ সন্ত্রাসী হামলার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে হাজির হয়।

[৭] এ ব্যাপারে কুয়াকাটা ২০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাঃ সুবির পাল জানিয়েছেন, ৯ জনের মধ্যে ১জন মহিলা ও ১ জন পুরুষ গুরুতর আহত বিধায় উপজেলাা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়েছে।

[৮] এবিষয়ে মহিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, সংঘর্ষের ঘটনা শুনে সরেজমিনে গিয়েছিলেন। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত