প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নিহতের ঘটনায় ক্ষতিপূরণ দাবি হেফাজতের

নিউজ ডেস্ক: [২] ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে শুক্রবার ঢাকা, চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভের সময় পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনায় কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম৷এ ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যদের শাস্তি দাবি করে সরকারকে গুলিতে নিহত ব্যক্তিদের ক্ষতিপূরণ দিতে বলছে তারা৷

[৩] হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী এক বিবৃতিতে গুলিবর্ষণের জন্য দায়ী পুলিশ সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন৷ তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে এভাবে পুলিশের গুলিবর্ষণের ন্যক্কারজনক ঘটনা কখনো মেনে নেওয়া যায় না৷ এর জবাব প্রশাসনকে অবশ্যই দিতে হবে এবং অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে৷ এ আন্দোলন দেশ কিংবা সরকারের বিরুদ্ধে ছিল না উল্লেখ করে পুলিশের গুলিতে নিহত ব্যক্তিদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া এবং আহত ব্যক্তিদের সুচিকিৎসার দাবি জানান তিনি৷

[৪] রবিবার দেশব্যাপী সকাল সন্ধ্যা হরতাল পালন করবে দলটি৷ হরতালে কোন ধরনের বাঁধা দেওয়া হলে কঠোর হুশিয়ারি দিয়েছেন দলটির নেতারা৷

[৫] হেফাজতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, ‘‘আমরা শান্তিপূর্ণভাবেই হরতাল পালন করব৷ যদি বাঁধা দেওয়া হয় তাহলে কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে৷ সাংবিধানিক দায়িত্ব হিসেবে পুলিশ আমাদের হরতালে বাঁধা দিতে পারে না৷ আর যদি পুলিশ ছাড়া আওয়ামী লীগ, যুবলীগ আসে তাহলে হেফাজত বুঝিয়ে দেবে কত ধানে কত চাল? মোদি বাংলাদেশে এসে দেশের মাটিকে কলঙ্কিত করেছে৷’’

[৬] গত শুক্রবার পুলিশের সাথে সংঘর্ষে সারা দেশে অন্তত পাঁচ জন নিহত হয়৷ শনিবার কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার নন্দনপুর গ্রামে হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে বিজিবি ও পুলিশের সংঘর্ষে চার জন নিহত ও ১৬ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন৷ তাছাড়া ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা সদরে একটি মিছিল বের করে আওয়ামী লীগ৷ এ সময় মাদ্রাসার ছাত্রদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা৷ পরিস্থিতি মোকাবিলায় পুলিশ গুলি চালালে একজন নিহত হন৷

[৭] এদিকে পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শনিবার দুপুরে বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলাম৷ সেখানে নেতারা বলেন, অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটলে সরকারকে এর দায় নিতে হবে৷ কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বেলা সোয়া ১১টার দিকে হেফাজতে ইসলামের কয়েকশ’ নেতাকর্মী বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর পাশের সিঁড়িতে অবস্থান নেন৷ হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই পল্টন, গুলিস্তান ও বায়তুল মোকাররম এলাকায় প্রধান সড়ক ও অলিগলিতে সতর্ক অবস্থান নেন বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য৷ এ সময় পুলিশ এ এলাকায় যারা এসেছেন, তাদের সবাইকে তল্লাশি করে৷

[৮] চট্টগ্রামের হাটহাজারিতে শুক্রবারের সংঘর্ষের পর এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে৷ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ওই এলাকা ঘিরে রেখেছে৷ হেফাজতে ইসলামের কর্মীরাও চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ করে রেখেছে৷ সড়কে ইটের দেওয়াল বানিয়ে ও বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে অবস্থান নিয়েছে হেফাজতের কর্মীরা৷ এতে খাগড়াছড়ি, রামগড়, ফটিকছড়ি ও নাজিরহাটের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুরো এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি ২৫০ জন র্যাব এবং বিজিবির ১০০ সদস্য মোতায়েন করা হয়৷ শুক্রবারের সংঘর্ষের ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নিা৷

[৯] তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শুক্রবারের সংঘর্ষের ঘটনায় তিনটি মামলা হয়েছে৷ এসব মামলায় প্রায় সাড়ে ছয় হাজার অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করা হয়৷ পুলিশের দুই সদস্য বাদী হয়ে শনিবার বিকেলে সদর থানায় মামলা তিনটি দায়ের করেন৷

[১০] শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত জেলা শহরের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ১৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান জানিয়েছেন, আটক ব্যক্তিদের মধ্যে কোনো মাদ্রাসাছাত্র নেই৷ হামলায় অংশ নেওয়া বহিরাগতদের আটক করা হয়েছে৷ অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে৷

[১২] মোদির ঢাকা সফরবিরোধী বিক্ষোভে পাঁচজন নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার জাতীয় প্রেসকাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে ভাসানী পরিষদ৷ সমাবেশ শেষে পুলিশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে ধরে নিয়ে যায়৷ তবে পুলিশ বলেছে, কাউকে ‘আটক’ বা ‘গ্রেপ্তার’ করা হয়নি৷ সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে কয়েকজনকে ‘হেফাজতে’ নেওয়া হয়েছে৷ জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে৷ সূত্র: ডয়চে ভেলে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত