প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] খোলা ভোজ্যতেল বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা

শাহীন খন্দকার: [২] রাজধানীর বাজারে সরকার নির্ধারিত দরে ভোজ্য তেল বিক্রি হচ্ছে না। কৃষি মার্কেট-কাওরানবাজার ও টাউনহলসহ কয়েকটি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ১১৬ থেকে ১২০ টাকায় ও বোতলজাত সয়াবিন ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

[৩] আর পাঁচ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৬৫০-৭০০ টাকায়। প্রতি লিটার সুপার পাম অয়েল বিক্রি হচ্ছে ১০৫ থেকে ১০৭ টাকা। আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্য তেল সয়াবিন ও পাম অয়েলের সরবরাহ কম এমন অজুহাতে গত প্রায় দুই মাস ধরে অস্থির দেশের ভোজ্য তেলের বাজার।

[৪] শনিবার কৃর্ষি মার্কেটে বাজার করতে আসা ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, সরকার ভোজ্য তেলের দাম নির্ধারণ করে দেওয়ার পর তিন দিন পার হয়ে গেছে। কিন্তু বাজারে তার কোনো প্রতিফলন নেই। তাহলে দাম নির্ধারণ করে কি লাভ হলো?

[৫] এদিকে বাজারে চালের দাম আবার বাড়তি।এক সপ্তাহের ব্যবধানে খুচরা বাজারে সরু চাল নাজিরশাইল-মিনিকেট কেজিতে তিন থেকে চার টাকা বেড়ে ৫৮-৬৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজিতে ২ টাকা বেড়ে পাইজাম-লতা বিক্রি হচ্ছে ৫০-৫৬ টাকায়। আর মোটা চাল কেজিতে ২ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ -৪৮ টাকায়।

[৬] প্রতি কেজি খোলা আটা দুই টাকা বেড়ে ৩০-৩২ টাকা ও প্যাকেট আটা তিন টাকা বেড়ে ৩৩-৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে খোলা ময়দা কেজিতে দুই টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ৩৩-৩৫ টাকায়। অপরদিকে অপরিবর্তিত রয়েছে সবজি, পেঁয়াজ, মাছ-গরু, খাসির মাংসসহ অন্য পণ্যের দাম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত