প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]মির্জাগঞ্জে মধ্যযুগীয় কায়দায় স্কুল ছাত্রীকে নির্যাতন

সোহাগ হোসেন:[২] জেলায় দিন দুপুরে  মধ্যযুগীয়  কায়দায় সারিকা  আক্তার (১৬) নামের এক স্কুল ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করা হয়েছে। বর্তমানে ওই ছাত্রী ও তার মামা আনোয়ার হোসেন টুটুল উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত আছে। উপজেলার মজিদবাড়ীয়া ইউনিয়নের কুদবারচর গ্রামে এ নির্মম ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায়  শুক্রবার  রাতে তার বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

[৩] অভিযোগে জানা যায়, সারিকা কুদবারচর  গ্রামের নিজাম উদ্দিন হাওলাদারের মেয়ে ও আয়লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী। একই এলাকার সোহরাব মোল্লা ও সারিকার বাবার সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিল।এছাড়াও সোহরাব মোল্লার ছেলে ইমরান মোল্লা সারিকাকে পথে ঘাটে উত্তক্ত করতো ও কু-প্রস্তাব দিয়ে  আসছিলো।

[৪]ঘটনার দিন সকালে সারিকার মামা ঢাকা থেকে তাদের বাড়ি এসে এসব ঘটনার প্রতিবাদ করলে সোহরাব মোল্লা ও মুছা ফকির তাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করে সাথে থাকা টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। সারিকা বাধা দিলে ইমরান ও সজিব তাকে বিবস্ত্র করে অমানুষিকভাবে পিটাতে থাকে। মির্জাগঞ্জ থানার ওসি এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, এঘটনায়া একটি  মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি এজাহার ভুক্ত করা হয়েছে। এব্যাপারে যথায়থ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সম্পাদনা:অনন্যা অফরিন

 

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত