প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাজাহানপুরে তালাকপ্রাপ্তা নারীর মাথা ন্যাড়া করায় ভাসুর ও শশুর গ্রেপ্তার

আবদুল ওহাব : বগুড়ার শাজাহানপুরে তালাকপ্রাপ্তা এক নারীর মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার অভিযোগে শ্বশুর ও ভাসুরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন উপজেলার সুজাবাদ উত্তরপাড়ার মৃত তজমল আলীর ছেলে শ্বশুর ইয়াছিন আলী (৫৮) এবং ভাসুর আইদুল ইসলাম (৩০)।

রবিবার ২৪ জানুয়ারী অভিযোগ দায়েরের পর সন্ধ্যায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। মামলার তকর্মকর্তা এসআই আব্দুর রাজ্জাক এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার বাদী ওই নারী জানান, ৫ বছর আগে উপজেলার সুজাবাদ উত্তরপাড়ার ইয়াছিন আলীর ছেলে সুমনের সাথে তার বিয়ে হয়। সংসার জীবনে তাদের ঘড়ে আসে দুই সন্তান। পারিবারিক কলহের জের ধরে গত ২৪ শে মার্চ তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়। ডিভোর্সের পর তিনি শিশুপুত্রকে নিয়ে উপজেলার ভান্ডারপাইকা উত্তরপাড়ায় তার বাবার বাড়িতে থাকেন। মাঝে মধ্যে সুমন তার ছেলেকে দেখতে আসতেন।

তিনি আরও জানান, এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার মাদলা চাঁচাইতারা বন্দরে সুমনের কম্পিউটার দোকানে ছেলে ইশানকে নিয়ে যেতে বলে। তার কথামতো ছেলেকে নিয়ে সুমনের দোকানে পৌঁছালে পূবর্ পরিকল্পিতভাবে স্বামী, শ্বশুর ও ভাসুর জোর করে দোকান ঘরের শাটার নামিয়ে দিয়ে এলোপাতাড়ি কিল, ঘুষি মারে। একপর্যায়ে সামাজিকভাবে অপমান অপদস্ত করার জন্য তারা তাকে পেছন দিক থেকে দুই হাত চেপে ধরে মাথা ন্যাড়া করে দেয়। চিৎকার দিলে তারা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে তারা দ্রুত পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতে স্বামী, শ্বশুর ও ভাসুরকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

এসআই আব্দুর রাজ্জাক জানান, স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারীকে মাথা ন্যাড়া করে দিয়ে স্বামী, শ্বশুর ও ভাসুর পলাতক ছিল। বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফয়সাল আহমেদের নির্দেশনায় মোবাইল ট্র্যাকিং করে রবিবার ভোর ৫টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানা এলাকা থেকে শ্বশুর ইয়াছিন আলী ও ভাসুর আইদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে এবং স্বামী সুমনকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত