প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পাত্র চাই বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা চক্রের অন্যতম নারী সদস্য গ্রেপ্তার

সুজন কৈরী : [২] পত্রিকায় পাত্র চাই বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণাচক্রের অন্যতম আরো এক নারী সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) অর্গানাইজড ক্রাইম ইউনিট। গ্রেপ্তার নারীকে তার স্বামীসহ প্রতারকচক্র পাত্রী সাজিয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতো। গ্রেপ্তার নারী হলেন-মোসা. তামান্না (২৭)।

[৩] সোমবার রাতে রামপুরায় অভিযান চালিয়ে চক্রের অন্যতম সদস্য তামান্নাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি জামালপুরের ইসলামপুরের গোয়ালেরচর মো. ফারুক হোসেনের স্ত্রী। বর্তমানে রাজধানীর রামপুরায় ই ব্লকের ৫ নস্বর রোডের ২৩ নম্বর বাড়ির ৭ম তলায় থাকেন।

[৪] মঙ্গলবার সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম ইউনিটের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) জিসানুল হক জানান, এর আগে পাত্র চাই বিজ্ঞান দিয়ে প্রতারণাচক্রের মূলহোতা সাদিয়া জান্নাত ওরফে জান্নাতুল ফেরদৌসকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্যে সিরাজুল ইসলাম সিরাজ ও ফিরোজ মিয়া নামের চক্রের আরও দুই পুরুষ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেওয়া তথ্যে চক্রের অন্যতম নারী সদস্য তামান্নার বিষয়ে জানা যায়।

[৫] সিআইডির এই কর্মকর্তা জানান, চক্রটি সাধারণত কানাডার সিটিজেন সুন্দরী বিধবা সন্তানহীন নামাজি পাত্রীর জন্য ব্যবসার দায়িত্ব নিতে আগ্রহী বয়স্ক পাত্রের জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছিলো। গ্রেপ্তার চক্রের পুরুষ সদস্যরা সাদিয়া ও তামান্নাকে পাত্রী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কাজটি করতেন। এরপর পাত্রীর সঙ্গে নিয়মিত কথোপকথন ও দেখা-সাক্ষাৎ করার মাধ্যমে বিশ্বাস অর্জন করে কানাডায় নিয়ে যাওয়া বাবদ ইমিগ্রেশন, ম্যারেজ সার্টিফিকেট, ভিসা প্রসেস ইত্যাদির নামে অর্থ হাতিয়ে নিতো।

[৬] সিআইডি জানিয়েছে, চক্রটির মাধ্যমে প্রতারিত অনেক ভুক্তভোগী সিআইডি কার্যালয়ে যোগাযোগ করে অভিযোগ জানিয়েছেন। তাদের ভিত্তিতে এ পর্যন্ত চক্রের মূলহোতা জান্নাতুল ফেরদৌসসহ চার সদস্যসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

সর্বাধিক পঠিত