প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে প্রয়োজন সঠিক জনশুমারি: বিশ্লেষকদের মতামত

শরীফ শাওন: [২] সংবিধানে সকল সম্প্রদায়ের মানুষের সমান অধিকার থাকলেও এই ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠী নানা বৈষম্যের শিকার হচ্ছে। সমাজের দলিত ও ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য আলাদা কোনো শুমারি হয়নি। তাদের সংখ্যা নিশ্চিত করা না গেলে অধিকার রক্ষা সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধু যে দেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেটা নিশ্চিত করতে হলে ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর আলাদা আদম শুমারি প্রয়োজন। বুধবার আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

[৩] সংসদ সদস্য অ্যারোমা দত্ত বলেন, আদিবাসী শব্দ নিয়ে দেশে কিছু দ্বন্দ্ব রয়েছে। বিশ্বজুড়ে দেখা যায় এসকল গোষ্ঠী নির্দিষ্ট স্থানে নির্দিষ্ট ভূমিতে বাস করে, যেখাতে তাদে স্বকীয়তা হুমকির মুখে।

[৪] সিপিডির প্রধান নির্বাহী ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, সংখ্যা ও সংজ্ঞার বিষয়টি আত্মপরিচয়ের সংকট। এটাকে রাজনৈতিকভাবে নিরসন করতে হবে।

[৫] অধ্যাপক ড. কাজী মারুফুল ইসলাম বলেন, ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা হলে এ সংকট কেটে যাবে, এটা দাবি নয়, তাদের অধিকার।

[৬] পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, সরকার ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে বিশেষ প্রকল্প নিয়েছে। ইতোমধ্যে বৃহত্তর সিলেটের মণিপুরী ও হাজং জনগোষ্ঠীর জন্য বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অন্য অঞ্চলের ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীরা পর্যায়ক্রমে বরাদ্দ পাবেন। আরও অর্থ বরাদ্দ বাড়ানো যাবে।

[৭] জনশুমারির আওতায় আনা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলা ভাষাও আক্রমণের মুখে প্রতিনিয়ত। গ্লোবালাইজেশনের কারণে অনেক ভাষাই আক্রমণের মুখে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত