প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিএনপির বলা উচিত বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য আছে থাকবে: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

শিমুল মাহমুদ : [২] আদর্শের জায়গায় মিল না থাকলেও রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক রূপান্তরে আগ্রহী দল গুলোকে একত্রিত করতে কাজ করছে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। এতে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ও ‘রাষ্ট্র চিন্তা’ নামে একটি সংগঠনের দায়িত্বশীলরাও যুক্ত হচ্ছেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে জোনায়েদ সাকি বলেন, জোটের বিষয়ে প্রকৃত অর্থে আমাদের এখনো কোনো আলোচনা হয়নি। তবে কিভাবে বৃহত্তর একটা আন্দোলন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আমরা ভূমিকার রাখতে পারি সে বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে।

[৩] তিনি বলেন, দেশকে গণতান্ত্রিক রুপান্তর করতে হবে। এর প্রথম শর্ত হলো সরকারের পতন এবং একটা নির্বাচনকালীন সরকারে কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর ও সামাজিক রাজনৈতিক চুক্তি। এটা করতে গেলে রাজনীতিক সংগ্রামের প্রয়োজন। আর সেটা করতে হলে আমাদের নতুন রাজনৈতিক শক্তির উত্থানের দরকার রয়েছে। আর সেজন্য আগ্রহী রাজনীতিক দল গুলোকে একত্রিত করতে চেষ্টা করছি।

[৪] আজকে ক্ষমতায় যারা থাকছেন; তারা হয় ভারত পন্থী না হয় চীন অথবা পাকিস্তান পন্থী না হয় সৌদি পন্থী কিংবা মার্কিন, ইউরোপ। নানা পন্থী আছে কিন্তু বাংলাদেশ পন্থী কোনো সরকার নেই। এর কারণ আমাদের রাষ্ট্র প্রবলভাবে অগণতান্ত্রিক ভাবে জনগণকে ক্ষমতাহীন করেছে যার ফলে সে নিজেও ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে। আমরা বাংলাদেশ পন্থী সরকার চাই।
ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমরা শুধু মওলানা ভাসানীর মৃত্যু দিবস পালন করেছি এর বাহিরে কিছু না। আমার সঙ্গে কারো কোনো জোট গঠন নিয়ে আলোচনা হয়নি। তবে ভবিষ্যতে হবে না এটাও আমি বলছি না। আমি মনে করি বাংলাদেশে শক্ত জোট হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। কারণ সরকারে বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার মতো কোনো আওয়াজেই আমি শুনি না। এখন কোনো রাজনীতিক দল সেটা করছে না।

[৫] তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বিষয়ে এখনো বিএনপি কোনো কথা বলছে না। তাদের পরিষ্কার বলা উচিৎ ভাস্কর্য আছে থাকবে। যারা সেটা করছে তাদের বলতে হবে তোমরা ইসলামকে ভুল পথে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছো। আর আলেমদের নৈতিক দায়িত্ব এ বিষয়ে এ সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া।

[৬] নুরুল হক নুর বলেন, নতুন কোনো দল করছি না, আমরা চাই গণতন্ত্র উদ্ধারে সর্বদলীয় ঐক্য। এ রাষ্ট্রকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিনির্মাণ করতে হলে ছাত্র-যুবক-তরুণ সবাইকে আরো সচেতন হতে হবে এবং ভাওতাবাজির রাজনীতি বন্ধ করতে হবে। মুখে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর কাজে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করা এটার একটা পরিবর্তন করতে হবে। এরজন্য আমরা একটা রাজনৈতিক পরিবর্তনের কথা ভাবছি। আমরা বিশ^াস করি যে মানুষ যদি আমাদের ডাকে সাড়া দেয় তাহলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করতে পারবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত