প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রবিউল আলম: করোনা থেকে বাঁচতে হলে মাস্ক পরার বিকল্প নেই!

রবিউল আলম: মাস্ক করোনার প্রতিরোধের একমাত্র প্রতিরোধক বলা হয়। অনেক বিশেষজ্ঞকে বলতে শুনেছি, আইসোলেন, কোয়ারেন্টাইন ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার করে করোনাকে কঠিন করা হয়েছিল। সহজ করে বলতে হবে, মাস্ক বাধ্যতামূলক করতে হবে। ইতোমধ্যে মাস্ক ব্যবহারের জন্য অফিস আদালত, ব্যাংক, বীমা জনসমাগমে জেল জরিমানার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ধাপকে পার করার জন্য, কেন আমার বোধগম্য নয়। প্রশ্ন উঠেছে, মসজিদ মাদ্রাসায় বিধিনিষেধ নেই কেন? ইতোমধ্যে সিনেমা হল খুলে দেওয়া হয়েছে, মানুষের মনে করোনার আতঙ্ক নেই। মৃত্যুর সংখ্যা কমে আসছে। বিক্রমপুরে গত জুমার নামাজ পড়তে হয়েছে, মসজিদে আমি আর একজন মাস্ক পরিহিত।

স্বাস্থ্য সচেতনতার এই করুণ দশা দেখে মনে হচ্ছে মানুষের চাইতে করোনাই আতঙ্কে আছে, কখন এ দেশ ছেড়ে পালানো যায়। ঢাকা থেকে দের ঘণ্টা বিক্রমপুরের সচেতনতা যদি এ অবস্থা হয়, তবে বাংলাদেশের অজপল্লী অঞ্চলের কি অবস্থা, আমি আর ভাবতে পারছিনা। সব কিছুই স্বাভাবিক ভাবে চলছে, স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যাল নিয়ে তালবাহানা কেনো ? আমার নাতির সারে চার বছর মাত্র স্কুল যাওয়া শুরু করেছিলো, করোনার প্রতিবন্ধকতা মেনেও নিয়েছিলাম। মাস্ককে বাধ্যতামূলক করুন। গ্রাম-গঞ্জ, শহর, উপশহর সবখানে প্রশাসনিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক ঐক্য চাই মাস্ক ব্যবহারে, প্রতিজন প্রতিঘরকে মাস্কের আওতায় আনতে হবে যেকোনো মূল্যে। সব চলছে, চলতে দিন স্বাভাবিগ গতিতে।

লেখক: মহাসচিব বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি

সর্বাধিক পঠিত