প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধর্ষণ জেনে আপসের নামে বন্ধুদের ডেকে বিধবাকে ফের গণধর্ষণ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে দুই সন্তানের জননী এক বিধবাকে এক রাতে তিনবার ধর্ষণ করার অভিযোগে উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। সেই মামলায় উঠে এসেছে ধর্ষণের ঘটনা জানার পর আপসের নামে ভুক্তভোগীকে আবারো পাঁচজনের পালাক্রমে ধর্ষণ করার তথ্য।

মামলার নথির তথ্যানুযায়ী, ধর্ষণের শিকার নারী আড়াইহাজার উপজেলার কায়েমপুর এলাকার বাসিন্দা। তিনি ওই উপজেলার বিনাইচচরে অবস্থিত ভাই ভাই স্পিনিং মিলের শ্রমিক। গত ৭ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ওষুধ কিনতে ফার্মেসিতে যান। তখন নৈকাহন বাজারের আনিসের মার্কেটের সামনে পৌঁছালে তাকে ডেকে বাজারের মাছের দোকানে নিয়ে যান আলী আকবর। পরে দোকানের শাটার বন্ধ করে তাকে ধর্ষণ করেন।

ধর্ষণের শিকার ওই বিধবা দোকান থেকে বের হন। এ সময় বাইরে থাকা একই এলাকার আব্দুল মালেকের ছেলে মোস্তফা, একই এলাকার আনারুল, লিটন বিধবাকে জিজ্ঞেস করেন, আকবরের সঙ্গে কী হয়েছে? ঘটনা খুলে বললে ধর্ষণের শিকার নারীকে আপসের আশ্বাসে লিটনের পুকুর পাড়ে নিয়ে যায় তিনজন। সেখানে সাড়ে ৮টার দিকে পালাক্রমে বিধবাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়। পরে লিটন ফোন করে শাহীন ও তরিকুল নামে দুইজনকে ডেকে আনে। শাহীন ও তরিকুল তাকে জোর করে রাত সাড়ে ১০টায় একই এলাকার আলী হোসেনের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

ওই নারী লোকলজ্জা ও সন্তানদের কথা চিন্তা করে বিষয়টি গোপন রাখেন। পরে স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে বুধবার রাতে আড়াইহাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, বিধবাকে গণধর্ষণের ঘটনায় ছয়জনের বিরুদ্ধে করা মামলার প্রধান আসামি আলী আকবরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত