প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জার্মান সুপার কাপ জিতলো বায়ার্ন মিউনিখ

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] খেলার শুরুটা দুর্দান্ত ছিলো বায়ার্ন মিউনিখের। যে কারণে তাদের কাছে জোড়া গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। তবে দলটি ঘুরে দাঁড়ালো দারুণভাবে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ট্রেবল জয়ীদের আটকাতে পারেনি তারা। শেষ দিকে ব্যবধান গড়ে দিলেন জসুয়া কিমিচ। জার্মান সুপার কাপ জয়ের উল্লাসে মাতল বায়ার্ন মিউনিখ।

[৩] আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় বুধবার রাতে ঘরোয়া ফুটবলে মৌসুমের প্রথম শিরোপা লড়াইয়ে ৩-২ গোলে জিতেছে হান্স ফ্লিকের দল। তোলিসোর গোলে বায়ার্ন এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন টমাস মুলার। বিরতির আগে ও পরে ডর্টমুন্ডের গোল দুটি করেন ইউলিয়ান ব্রান্ডট ও আর্লিং হলান্ড।

[৪] গত মৌসুম উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, বুন্ডেসলিগা ও জার্মান কাপ জেতা বায়ার্ন এবার ছয় দিনের ব্যবধানে দুটি শিরোপা ঘরে তুলল। গত বৃহস্পতিবার সেভিয়াকে হারিয়ে উয়েফা সুপার কাপ জিতেছিল তারা।

[৫] ম্যাচের অষ্টাদশ মিনিটে দারুণ এক পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। ৩২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মুলার। বাঁ দিক থেকে আলফোনসো ডেভিসের ক্রসে হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন জার্মান এই ফরোয়ার্ড।

[৬] সাত মিনিট পর ব্যবধান কমায় ডর্টমুন্ড। হলান্ডের পাস ডি-বক্সের মুখে ধরে সামনে এগিয়ে জোরালো উঁচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন জার্মান ফরোয়ার্ড ব্রান্ডট।

[৭] দ্বিতীয়ার্ধের দশম মিনিটে সমতা টেনে লড়াই জমিয়ে তোলেন হলান্ড। টমাস দেলেনির রক্ষণচেরা পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ের শটে বল জালে পাঠান নরওয়ের তরুণ ফরোয়ার্ড। খানিক পর এগিয়েও যেতে পারতো ডর্টমুন্ড। তবে ডি-বক্সে বিপজ্জনক জায়গা থেকে হলান্ডের নেওয়া শট রুখে দেন গোলরক্ষক নয়ার। ৮২তম মিনিটে অসাধারণ নৈপুণ্যে জয়সূচক গোলটি করেন কিমিচ।

[৮] বুন্ডেসলিগায় শালকেকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে মৌসুম শুরুর পর সেভিয়াকে হারিয়ে ওই সুপার কাপ জয়। টানা ২৩ জয় ও ৩২ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর গত রোববার হঠাৎ যেন পথ হারিয়ে ফেলে বায়ার্ন। লিগে হফেনহাইমের মাঠে হেরে বসে ৪-১ গোলে। তবে, ঘুরে দাঁড়াতে একটুও সময় নিল না তারা। দারুণ এক জয়ে সাফল্যের মুকুটে যোগ করল আরেকটি পালক। গোল ডটকম/ বিডিনিউজ

সর্বাধিক পঠিত