প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্বামীর বিচ্ছিন্নতায় আবেগী ট্যুইট মেসি ও সুয়ারেসের স্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেস খুবই ঘনিষ্ঠ বন্ধু। ৬ বছর বার্সেলোনায় কাঁধে কাঁধ রেখে খেলেছেন দুজন। এ মৌসুমে দুই বন্ধুর ঠিকানা হয়েছে দুই ক্লাবে। সুয়ারেসকে ছেড়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। উরুগুইয়ান ফরোয়ার্ড পাড়ি দিয়েছেন স্পেনের আরেক ক্লাব আতলেতিকো মাদ্রিদে।

[৩] সুয়ারেসের এই বিদায় মেনে নিতে পারেননি মেসি। বার্সেলোনার ওর নিজের ক্ষোভও ঝেড়েছেন। আসলে শুধু মেসি নয়, সুয়ারেসের বিদায়ের প্রভাব পড়েছে মেসির পুরো পরিবারেই। দুই পরিবারের মধ্যে বন্ধনটা যে অনেক দৃঢ়, বন্ধুত্বের চেয়েও বেশি।

[৪] মেসি ও সুয়ারেজ যেমন খুব ভালো বন্ধু, তেমনি মেসির স্ত্রী আনতোনেল্লা রোকুজ্জো ও সুয়ারেজের স্ত্রী সোফি বালবিও খুব ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। মেসি ও সুয়ারেজের সন্তানরাও তাই। কাতালান সিটিতে মাত্র কয়েক মিনিটের দূরত্বে ছিল দুই পরিবারের বাস।

[৫] সুয়ারেস আতলেতিকোয় পাড়ি দিলেও দুই পরিবারের এই বন্ধন হয়তো রয়ে যাবেই। কিন্তু খুব কাছাকাছি থাকাটা হচ্ছে না। এমন অবস্থায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সুয়ারেসের স্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে আবেগী বার্তা দিয়েছেন মেসির স্ত্রী।

[৬] ইনস্টাগ্রামে আনতোনেল্লা রোকুজ্জো বলেন, বোলো, আমার বন্ধু, আমার বোন… ধন্যবাদ এতোগুলো বছর একসঙ্গে থাকার জন্য। আরো ধন্যবাদ জানাই সেই সুন্দর মুহূর্তগুলোর জন্য, সুন্দর কথাবার্তাগুলোর জন্য। তুমি ছিলে আমার পরিবারের মতো। আমি বলতে পারছি না ঠিক কতটা মিস করব তোমাকে ও তোমার পরিবারকে। সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ। আশা করি একসঙ্গে আরো মজার ও অসাধারণ সময় কাটানোর সময় পাব আমরা। আমি নিশ্চিত খুব দ্রুতই আবার এক হব আমরা। আমি তোমাকে ও তোমার পরিবারকে ভালোবাসি। তোমাদের জীবনের নতুন ধাপে তোমাদের জন্য শুভকামনা জানাচ্ছি।

[৭] সুয়ারেজের স্ত্রী যার উত্তরে লিখেছেন, ভেবেছিলাম আর কান্না করব না। এরপরই তোমার পোস্টটি দেখতে পেলাম। ধন্যবাদ সবকিছুর জন্য। যা যা বলেছ, জীবনের বাকি সময়টায় এগুলো মনে থাকবে। তোমাকে ভালোবাসি, তোমাকে পছন্দ করি। – ইনস্টাগ্রাম/ দেশরূপান্তর

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত