প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্নীতি আর দুঃশাসনে দিশাহারা জনগণ: মান্না

ডেস্ক রিপোর্ট : সরকারের দুর্নীতি-দুঃশাসনে দেশের জনগণ দিশাহারা বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এই মন্তব্য করেন।পূর্বপশ্চিম

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, দেশ এক ভয়াবহ ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। একদিকে করোনা মহামারি এবং বন্যা, অন্যদিকে দুর্নীতি দুঃশাসনে দিশাহারা দেশের জনগণ। একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত, দুর্নীতির প্রশ্রয় এবং সীমাহীন দুঃশাসনের মাধ্যমে সরকার দেশকে একটি ভয়াবহ পরিণতির দিকে ঠেলে দিয়েছে। করোনা মোকাবিলায় সরকার সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। একদিকে সরকারদলীয় নেতাকর্মী এবং মদতপুষ্টদের লাগামহীন লুটপাট, দুর্নীতি অন্যদিকে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একের পর এক ঘৃণ্য নৃশংসতা এবং লুটতরাজের চিত্র আজ সকলের সামনে উন্মোচিত।

তিনি বলেন, বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী রাজধানী ঢাকার প্রায় ১০ শতাংশ মানুষ করোনা সংক্রমিত বলে খবর প্রকাশিত হচ্ছে, বিশেষজ্ঞগণ দ্বিতীয় ধাপে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশংকা প্রকাশ করছেন, সেই সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিন বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। যদিও জনগণকে করোনা পরিস্থিতির সঠিক তথ্য কখনই জানানো হয়নি। ন্যূনতম যেটুকু জানার সুযোগ ছিল, এখন সেটাও বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। মান্না বলেন, স্বাস্থ্যখাতের এই ভঙ্গুর অবস্থার মধ্যেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিশেষ করে পুলিশ বাহিনীর অনিয়ম, দুর্নীতি, নৃশংসতার নগ্নচিত্র উন্মোচিত হয়েছে। দেশের মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা প্রদানের জন্য যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, তারাই আজ জনগণের সামনে ত্রাস হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। জনগণের কাছে পুলিশ আজ এক মূর্তিমান আতঙ্কের নাম। ক্রসফায়ারের নামে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড আজ বাণিজ্যে পরিণত হয়েছে। আর এসবের মদতদাতা, গডফাদার হিসেবে সরকারি দলের লোকদের নাম পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। মেজর (অব.) সিনহার হত্যাকাণ্ডের পর একের পর এক পুলিশের নৃশংসতা এবং দুর্নীতির খবর প্রতিদিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে। এই দৈত্যের হাত থেকে কেউই রক্ষা পাচ্ছে না। আমরা সকল বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই বলে এসেছি। আমরা ক্রসফায়ারের নামে কোনো ধরনের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সমর্থন করি না। আমি এ ধরনের প্রত্যেকটি হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।

সর্বাধিক পঠিত