প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] প্রচন্ড-অলির দ্বন্দ্ব, দলীয় কর্মীদের ভয়ানক পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকতে বললেন প্রচন্ড

ইমরুল শাহেদ : [২] পুষ্প কমল দাহাল প্রচন্ড নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির (এনসিপি) বর্তমান নির্বাহী চেয়ারম্যান। প্রধানমন্ত্রী অলির সঙ্গে তার দ্বন্দ্বের দৃশ্যমান কোনো সমাধান না হওয়ায় তিনি এ কথা বলেছেন। ইয়ন

[৩] নিজেদের মতপার্থক্য দূর করতে এই দুই নেতার মধ্যে কমপক্ষে দশটি বৈঠক হয়েছে। যেহেতু প্রধানমন্ত্রী অলি ‘ওয়ান-ম্যান-ওয়ান-পোস্ট’ শর্তটি মানেননি, সেহেতু আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে। অলি প্রধানমন্ত্রীর পদ যেমন ছাড়তে রাজী হননি, তেমনি তিনি দলের কো-চেয়ারম্যানের পদও ছাড়তে রাজী নন।

[৪] এই নিয়ে শাসক দল এনসিপির মধ্যে একটা কোন্দল বীজ থেকে মহীরুহে পরিণত হতে শুরু করেছে। তারই প্রেক্ষাপটে প্রচন্ড নিজেই অলির পদত্যাগ দাবি করেছেন। যুক্তি হিসেবে সামনে আনা হয়েছে অলির ভারত বিরোধী মন্তব্য, যা তারা মনে করছেন রাজনৈতিক বা কূটনৈতিকভাবে সঠিক নয়। অলি বিরোধীরা মনে করছেন তিনি স্বৈরতান্ত্রিকভাবেই সব কাজ করছেন।

[৫] প্রচন্ড বুধবার কিছু পছন্দের সাংবাদিককে বলেছেন, ‘ক্ষমতা পাওয়া আমাদের অভিপ্রায় নয়। আমরা চাই দল পরিচালনার ক্ষেত্রে যথাযথ প্রক্রিয়ায় অনুসরণ করা হোক। পদ পাওয়াও আমাদের উদ্দেশ্য নয়, কিন্তু দলের ভেতরে যে ভুল প্রবণতা তৈরি হচ্ছে, তার বিরুদ্ধেই আমাদের লড়াই।’

[৬] অলির সঙ্গে দ্বিমতপোষণকারীরা অভিযোগ করছেন, অলি দলের উর্ধ্বতন নেতাদের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন। প্রচন্ড দাবি করেছেন, সেন্ট্রাল ওয়ার্কিং কমিটির প্রভাবশালী সংখ্যাগরিষ্ট সদস্যই অলির বিরুদ্ধে তোলা প্রতিবাদকে সমর্থন করছেন।

সর্বাধিক পঠিত