প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজবাড়ীর ৩ উপজেলার প্রায় ৪৫ হাজার মানুষ পানিবন্দী, পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা না পাওয়াসহ নানা দুর্ভোগ

মোঃ ইউসুফ মিয়া, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : [২] পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে সৃষ্ট বন্যায় রাজবাড়ীর ৩টি উপজেলার প্রায় ৪৫ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ এ তথ্য জানিয়েছেন।

[৩] গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, গোয়ালন্দের ৪টি ইউনিয়নের ১০ হাজার পরিবারের প্রায় ৪০ হাজার মানুষ পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছেন।

[৩] রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাঈদুজ্জামান খান জানান, বরাট ও মিজানপুর ইউনিয়নের ১ হাজার পরিবারের প্রায় ৪ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন।

[৪] পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, এ উপজেলার ২৫০টি পরিবারের প্রায় ৯শত মানুষ পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছেন। তবে বালিয়াকান্দি ও কালুখালী উপজেলার কোন মানুষ পানিবন্দী হননি বলে ওই ২ উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ জানিয়েছেন।

[৫] পানিবন্দী এলাকার অধিকাংশ মানুষ বাড়ী-ঘর ছেড়ে বেড়ীবাঁধ ও উঁচু রাস্তার পাশে এবং আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন। পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা না পাওয়াসহ বিশুদ্ধ খাবার পানি ও পশু খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে।

[৬] রাজবাড়ী জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুল করিম বলেন, বন্যা কবলিত মানুষের জন্য ১৩০ মেট্রিক টন চাল, শিশু খাদ্যের জন্য ২ লক্ষ টাকা এবং পশু খাদ্যের জন্য ২ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

[৭] জেলা প্রশাসক দিলাসাদ বেগম বলেন, বন্যায় পানিবন্দীদের ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তারা নিজ নিজ উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ করছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত