প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দু’টি আইসোলেশন ও টিট্রমেন্ট সেন্টার চালু করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

শাহীন খন্দকার : [২] এই দু’টি সেন্টারের জন্য ২৪ জন ডাক্তার, ৪০ জন নার্সসহ মোট ২০০ জনের বেশি কর্মকর্তা-কর্মচারি ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় বিশেষ প্রশিক্ষণ শেষ করেছেন। রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কক্সবাজার জেলায় চলমান পপুলেশন মুভমেন্ট অপারেশন কর্মসূচির আওতায় ও ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজসহ অন্যান্য পার্টনার ন্যাশনাল সোসাইটির সহায়তায় এই আইসোলেশন ও টিট্রমেন্ট সেন্টার নির্মাণ করা হয়।

[৩] উল্লেখ্য, কক্সবাজার জেলা ও ক্যাম্প এলাকায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এ জেলায় বর্তমানে মোট কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা প্রায় দেড় হাজার। এর মধ্যে ক্যাম্প কমিউনিটিতে সরকারি হিসেবে সংখ্যা ৪০ জনের মতো, যার মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন তিন জন।

[৪] কক্সবজারের পপুলেশন মুভমেন্ট অপারেশন প্রধান সৈয়দ আলী নাসিম খলিলুজ্জামান এ বিষয়ে বলেন, পর্যাপ্ত পরীক্ষা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা না থাকায় এখানে করোনা আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা নিরূপণ করা এখন সম্ভব হয়ে উঠছে না। প্রচণ্ড ঘনবসতিপূর্ণ বসবাসের পরিবেশ, অতীতের রোগ ও অসুস্থতা, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার যথেষ্ট সুযোগের অভাব এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবাকেন্দ্রের সঙ্কটের কারণে ক্যাম্প কমিউনিটির বাসিন্দারা এই ভাইরাসে আক্রান্তের সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছেন।

[৫] আইএফআরসি’র কক্সবাজার অফিসের প্রধান সাঞ্জিব কুমার কাফলে বলেন, প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবার ঘাটতি পূরণের অংশ হিসেবে এই দুটি নতুন ফিল্ড হাসপাতাল কাজ করে যাবে। জানা যায়, সম্মিলিত মানবিক প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট কক্সবাজারে ইতিমধ্যে ছোটো-বড় মিলিয়ে প্রায় ১২টি স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছে। প্রতিদিন এসব কেন্দ্র থেকে স্থানীয় ও ক্যাম্প কমিউনিটির অসংখ্য মানুষ স্বাস্থ্যসেবা পেয়ে থাকেন।

[৬] তবে এত বিপুল জনগোষ্ঠীর চাহিদার বিপরীতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের বিষয়টিতে এখনও অনেক অসুবিধা ও শূন্যস্থান রয়ে গেছে। তথ্য কালের কন্ঠ্য ও বাংলা নিউজ। কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন ক্যাম্পে বসবাসরত মিয়ানমারের নাগরিক ও ক্যাম্প এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের করোনা চিকিৎসার সুবিধার্থে দু’টি আইসোলেশন ও টিট্রমেন্ট সেন্টার চালু করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

[৭] এদিকে সংশ্লিষ্টরা জানান, এ দু’টি আইসোলেশন সেন্টারে মোট ৮৪টি বেড রয়েছে। যার মধ্যে ক্যাম্প-২ তে অবস্থিত সেন্টারে ৩০টি ও ক্যাম্প-৭ এ অবস্থিত সেন্টারে ৫৪টি বেড রয়েছে। গতকাল রবিবার থেকে ৩০ শয্যা বিশিষ্ট ক্যাম্প-২ তে অবস্থিত আইসোলেশন সেন্টারে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে বলে ক্যাম্প কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত