প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কোভিড-১৯ ভাইরাস মোকাবেলায় ঐতিহ্যবাহী চীনা ওষুধ ও হারবাল চিকিৎসার ওপর জোর দিয়েছে বেইজিং

মেহেরুবা শহীদ: [২] ৩৮ বছর বয়সী ড্রোন ইঞ্জিনিয়ার জিয়াং কিংজেন। আক্রান্ত হয়েছিলেন কোভিড-১৯ ভাইরাসে। দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে অস্থায়ী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে ফিরেছিলেন তিনি। হাসপাতালটিতে ঐতিহ্যবাহী চীনা ওষুধ দিয়েই চিকিৎসা করানো হয়। সিএনএন

[৩] জিয়াং বলেন, অসুস্থ থাকাকালীন প্রতিদিন সকালবেলা স্যুপ খেতেন তিনি। যে স্যুপটি তৈরি করা হতো দারুচিনি ও যষ্টিমধুসহ ২০ রকমের ভেষজ উপাদান দিয়ে। তবে এতে রোগ সারবে কি না এ নিয়ে সন্দেহ ছিলো বেশিরভাগ রোগীরই। তাই তারা কেউই ঐ স্যুপ খেতে রাজি ছিলেন না। যদিও ফুসফুস পরিষ্কারের সাহায্যকারী উপাদান ছিলো ঐ স্যুপ।

[৪] করোনাভাইরাস মোকাবেলায় হারবাল উপাদানের উপর জোর দিয়েছে চীনা সরকার। চীনের বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানায়, বিশেষজ্ঞরা যখন ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য লড়াই করছেন তখন ঐতিহ্যবাহী চিকিৎসার সেবার মধ্য দিয়ে প্রতকার খুঁজে বেড়াচ্ছে চীন। গতমাসে চীনে করোনা আক্রান্ত ৬০ হাজার রোগীকে মূলধারার ওষুধের পাশাপাশি হারবাল চিকিৎসাও দেয়া হয়েছে।

[৫] চীনের ন্যাশনাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব ট্র্যাডিশনাল চাইনিজ মেডিসিনের উপ-প্রধান বলেন, যে ধরনের উদ্যোগ ও চিকিৎসা সেবার মধ্য দিয়ে আমরা কোভিড-১৯ ভাইরাস মোকাবেলা করেছি, সেই অভিজ্ঞতাগুলোই আমরা অন্যান্য দেশের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিতে চাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত