প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তেলের দরের অস্বাভাবিক পতন প্রভাব ফেলেছে বিশ্বপুঁজিবাজারে, মন্দা পরবর্তী সময়ের সবচেয়ে খারাপ অবস্থা পার করলো সবগুলো প্রধান সূচক

আসিফুজ্জামান পৃথিল : [২] রাশিয়া এবং ওপেকের মধ্যে সমঝোতা ব্যর্থ হওয়ায় সোমবার অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৩০ ডলারের নিচে নেমে গেছে। গত ৩০ বছরের মধ্যে এতো খারাপ পরিস্থিতি পার করেনি তেলের বাজার। সিএনএন, সিএনবিসি, ব্লুমবার্গ

[৩] এসঅ্যান্ডপি ৫০০ সূচক রোববার সন্ধ্যায়ই ৫ শতাংশ কমে যায়। ফলে ব্রেকিং সিস্টেম চালু হয়ে বন্ধ হয়ে যায় লেনদেন। ডাও ইন্ডাস্ট্রিয়াল সূচক কমে গেছে ১২০০ পয়েন্ট বা ৪.৯ শতাংশ। নাসডাক কম্পোজিট কমেছে ৪.৮ শতাংশ।

[৪] প্রভাব পড়েছে এশিয়া প্রশান্তমহাসাগরীয় অঞ্চলের শেয়ারগুলোতেও। অস্ট্রেলিয়ার এসঅ্যান্ডপি ২০০ সূচক দর হারিয়েছে ৭.৩ শতাংশ। সোমবারের এই পতন ২০০৮ সালের অক্টোবরের চেয়ে সবচেয়ে খারাপ। জাপানের নিক্কি ২২৫ সূচক ৫.১ শতাংশ দর হারিয়েছে। হংকং এর হ্যাংসেং হারিয়েছে ৪.২ শতাংশ। চীনের সাংহাই কম্পোজিটের পতন হয়েছে ৩ শতাংশ।

[৫] যুক্তরাষ্ট্রের ১০ বছরের পুরাতন ট্রেজারি নোট ০.৫ শতাংশ দর হারিয়েছে।

[৬] সৌদি আরব আবারও বিশ্ব তেলবাজারের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে একেবারেই কমিয়ে দিয়েছে তেলের দর। শুক্রবার ওপেকের প্রস্তাক করা তেলের উৎপাদন কমানোর প্রস্তাব প্রত্যাখান করে রাশিয়া।

[৭] লেনদেন শুরুর মুহুর্তেই দাম পড়তে শুরু করে ইউরোপীয়ান স্টকগুলোর। এফটিএসই ১০০ ৮.৫ শতাংশ দর হারিয়েছে। জার্মানির ডাক্স দর হারিয়েছে ৭.৪ শতাংশ। আর বিপি দর গারিয়েছে ইতিহাসের বৃহত্তম ২০ শতাংশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত