প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শহীদ মিনারবিহীন কোনো প্রান্তরের কথা বাংলার বুকে কল্পনা করা যায় না

মুসা কলিম মুকুল : বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব কোনটি? পহেলা বৈশাখ, ঈদ, দুর্গাপূজা? হয়তো। এ সব উৎসবে কতো রং, কতো গীত, কতো তামাশা, কতো ভোজ। কিন্তু সব উৎসবকে ছাড়িয়ে অনেক উঁচুতে মাথা তুলে একুশে ফেব্রুয়ারি। এখানে কোন রংঢং নেই, হৈচৈ নেই, ভোজ নেই। একে কেউ উৎসব বলেও না। তবু কী আবেগে সমবেত কণ্ঠে লোমহর্ষক সুর ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো’ গাইতে গাইতে মানুষ ফুলের তোড়া হাতে শহীদ মিনারের দিকে চলে মন্ত্রমুগ্ধের মতো। কী এক আশ্চর্য চেতনা জাগে বুকেÑ একুশ মানে মাথানত না করা।

শহীদ মিনারটিও দেখতে যে কী অপরূপ। অথচ কী সহজ এর শৈলী। একটুও জৌলুসের ছোঁয়া নেই এর অঙ্গে। তবুও দুনিয়ার আর কোনো স্তম্ভ কি এতো এতো পুষ্পিত শ্রদ্ধার্ঘ পায়? শহীদ মিনারবিহীন কোনো প্রান্তরের কথা বাংলার বুকে কল্পনা করা যায় না। পাকা শহীদ মিনার না থাকলে সেখানে গড়ে উঠে কাঠের, বাঁশের কিংবা কলাগাছের তৈরি অস্থায়ী শহীদ মিনার। খেলনা শহীদ মিনার বলে কিছু কিন্তু হয় না। এ সব শহীদ মিনারও অঞ্জলির ফুলের স্পর্শে সত্যি হয়ে উঠে। বাংলায় কেন বসন্ত আসে? সে আসে ফুলের পসরা নিয়ে, সে আসে শহীদ মিনারের পুষ্পার্ঘ্য হয়ে। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত